আন্তর্জাতিকনতুন খবর

পাকিস্তানে সংকটে হিন্দুরা, মন্দিরে হামলা করে ভাঙচুর লুটপাট চালাল উপদ্রবিরা

নয়া দিল্লিঃ এমাসেই ভারতের (India) প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশে (bangladesh) ঘটে গিয়েছে মর্মান্তিক ঘটনা। গুজব ছড়ানোকে কেন্দ্র করে একের পর এক দুর্গা মণ্ডপে চলেছে তাণ্ডব। পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে হিন্দুদের ঘরবাড়িও। আর এবার পাকিস্তান (Pakistan) থেকেও ঠিক এমনও ঘটনা সামনে এল। পাকিস্তানে জন্মাষ্টমীর দিনে সিন্ধ প্রান্তের সঙ্ঘার জেলার শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরে হওয়া হামলার পর এবার কোটরি কসবায় পুরনো শিব মন্দিরে হামলা হল। অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতীরা দেবী-দেবতার গলা থাকায় বহুমূল্য গহনা আর মন্দিরের দানপেটি থেকে ২৫ হাজার টাকা নিয়ে পালায়। তালা ভেঙে তাঁরা মন্দিরে প্রবেশ করেছিল বলে জানা গিয়েছে।

পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যম ডনে ছাপা খবর অনুযায়ী, পাকিস্তানের সিন্ধ প্রান্তের কোটরিতে একটি শিব মন্দিরে তালা ভেঙে ঢুকে মূর্তি ভাঙচুর করা হয়। এমনকি উপদ্রবিরা মূর্তি গলায় থাকা অলঙ্কার ও দানপেটি থেকে ২৫ হাজার টাকা নিয়ে পালায়। মন্দির প্রশাসনের অভিযোগের পর পুলিশ অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

যদিও, পুলিশ এই ঘটনাকে শুধুমাত্র চুরি করার মামলা আখ্যা দিয়ে মন্দিরের পবিত্রতা ভঙ্গের অভিযোগকে খারিজ করে দিয়েছে। এরপর সিন্ধের সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী জ্ঞানচন্দ্র ইমরানি এসএসপিকে অভিযোগ দায়ের করে দোষীদের শাস্তি এবং হিন্দুদের ন্যায় পাইয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। উনি বলেছেন, হিন্দুরা এখন দীপাবলি পালন করবে, আর এই সময় তাঁদের মন্দিরে হামলা লজ্জাজনক ঘটনা ছাড়া আর কিছুই না।

এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। শিব মূর্তি ভাঙা নিয়ে হিন্দুদের মনে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। হিন্দুরা অভিযোগ করে বলেন, পুলিশ অভিযোগ নিয়েছে ঠিকই, কিন্তু এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।

Related Articles

Back to top button