Press "Enter" to skip to content

পাক লেখকের ভবিষ্যৎবাণী, আগামী ২০-২৫ বছরের মধ্যে ধ্বংস হয়ে যাবে পাকিস্তান! গোটা ভূখণ্ড হবে ভারতের

শেয়ার করুন -

পাকিস্তানে (Pakistan) জন্ম লেখক তারিক ফতেহ (tarek fateh) বলেন, আগামী ২০ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে পাকিস্তান খতম হয়ে যাবে। উনি বলেন, আমার কথা মনে রাখবেন, বালুচিস্তান স্বাধিন হবে আর পাকিস্তান থেকে হিন্দুস্তান পর্যন্ত গোটা ভূভাগ ভারতের (India) অঙ্গ হয়ে যাবে। তারিক ফতেহ আজকাল কানাডায় স্ব-নির্বাসিত জীবন যাপন করছেন।

ইন্ডিয়া টিভিতে আজকে রাতে প্রসারিত হতে যাওয়া টিভি শো ‘আপকি আদালত” (aap ki adalat) এ রজত শর্মার (Rajat Sharma) প্রশ্নের জবাব দেওয়ার সময় তারিক ফতেহ বলেন, ‘হিন্দুস্তান অটক (পাকিস্তান) থেকে কটক পর্যন্ত বিস্তৃত হবে। যখন বালুচিস্তান স্বাধীন হবে, তখন পাকিস্তানের কোমর ভেঙে যাবে। পাকিস্তানের সেনা বাচ্চাদের ধর্ষণ করবে। বাচ্চাদের মেরে ফেলে হেলিকপ্টার দিয়ে উপতক্যায় ফেলে আসবে।”

তারিক ফতেহ বলেন, ‘আমি ১৯৬৭ সাল থেকে লড়াই লড়ছি। পাকিস্তানের সেনা স্বাধীনতার সময় বালুচিস্তানে কবজা করে নিয়েছিল। কলাত এর শাহেনশাহ ভারতের সাথে যুক্ত হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু কংগ্রেস সাংসদদের এক ডেলিগেশন, যাদের মধ্যে আবদুল কালাম আজাদও ছিলেন, উনি কলাতকে ভারতের সাথে যুক্ত হওয়ার কথা পরিস্কার না করে দেন। ভারতের সীমা থেকে কলাত ২০০ কিমি দূরে থাকার অজুহাত দেখান তিনি। পাকিস্তান করাচী থেকে ২ হাজার কিমি দূরে অবস্থিত ঢাকায় কবজা করতে গেছিল, কিন্তু আবদুল কালাম আজাদের জন্য ২০০ কিমি দূরে থাকা কলাত বেশি দুরত্ব মনে হল! সেই সময় ওমানের সুলতান গদর বন্দরের জন্য ৪০ লক্ষ টাকার প্রস্তাব দিয়েছিল কিন্তু ভারত সেটাকেও প্রত্যাখ্যান করেছিল।”

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসা করে ফতেহ বলেন, ‘ভারতের সেনায় গুজরাটের রেজিমেন্ট না থাকলেও, গুজরাট থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র যা করেছেন, সেটা বিগত ৭০ বছরে কেউ করতে পারেনি।

তারিক ফতেহ বলিউড অভিনেত্রী করিনা কাপুর দ্বারা তাঁর পুত্র সন্তানের নাম মঙ্গোলিয়ান আক্রমণকারী তৈমুর নাম রাখারও সমালোচনা করেন। উনি বলেন, ‘উনি মুর্খ বলেই ছেলের নাম তৈমুর রেখেছেন। তৈমুর বিশ্বের জনসংখ্যা তিন শতাংশ কমিয়ে দিয়েছিল। ভারতের কোনায় কোনায় ভারতীয়দের মাথার খুলি দিয়ে পিরামিড বানিয়েছিল সে। জানিনা শর্মিলা ঠাকুর কি ভাবেন? উনি কেমন সন্তানের জন্ম দিয়েছেন যে নিজের ছেলের নাম তৈমুর রেখেছে। আপনি ইসরায়েলে গিয়ে সন্তানের নাম হিটলার রাখতে পারবেন?”