অপরাধনতুন খবরভারতবর্ষ

কাশ্মীরে দাঁড়িয়ে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ” স্লোগানের বিরোধিতা করা অনন্যাকে প্রাণে মারার হুমকি

নয়া দিল্লিঃ টি-২০ (Twenty20) বিশ্বকাপে ভারতের (India) বিরুদ্ধে পাকিস্তানের (Pakistan) জয়ের উল্লাস এ দেশেও হয়েছে। কাশ্মীর, দিল্লি, উত্তর প্রদেশ, রাজস্থান সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে পাকিস্তানের নামে জয়ধ্বনি দেওয়ার মামলা সামনে উঠে এসেছে। শ্রীনগরের শের-ই-কাশ্মীর ইন্সটিটিউট অফ মেডিক্যাল সাইন্সে কলেজের (SKIMS) ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরালও হয়েছিল। সেখানে পাকিস্তানের জয়গান করা ছাত্রদের বিরুদ্ধে UAPA ধারায় মামলাও দায়ের হয়েছে।

পাশাপাশি ওই মেডিক্যাল কলেজের এক ডাক্তারি পড়ুয়া অনন্যা জামওয়ালকে (Ananya Jamwal) মারার হুমকি দেওয়া হচ্ছে। অনন্যার অপরাধ, সে ভারতে থেকে পাকিস্তানের জয়গান করার বিরোধিতা করেছিল। এখন তাঁর জন্য অনন্যার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে তাঁকে পুলিশের গোয়েন্দা বলা হচ্ছে এবং তাঁকে মারারও হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বলে দিই, অনন্যা ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ” স্লোগান দেওয়ার বিরোধিতা করেছিল মাত্র।

অনন্য জানায়, শের-ই-কাশ্মীর মেডিক্যাল কলেজে পাকিস্তান জিন্দাবাদ স্লোগান তোলা হয়েছিল। আমি দেশদ্রোহী স্লোগান তোলার বিরোধিতা করেছি বলেই, আমাকে হুমকির মুখে পড়তে হচ্ছে। অনন্যা জানায়, SKIMS-র অকাশ্মীরি পড়ুয়াদের উপর চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে। তাঁরা আমাকে এও হুমকি দিয়েছে যে, আমি যদি এই নিয়ে সরব হই, তাহলে আমার কেরিয়ার বরবাদ করে দেওয়া হবে। অনন্য জানায়, আমাকে সোশ্যাল মিডিয়া থেকেও দূরে থাকার হুমকি দেওয়া হয়েছে।

অনন্যা অভিযোগ করে বলে, একটি ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট যেটা সম্ভবত পাকিস্তান থেকে নিয়ন্ত্রণ হচ্ছে সেখানে আমার ছবি শেয়ার করে আমাকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া হয়েছে। অনন্যা প্রশ্ন তুলে বলে, দেশের জন্য আওয়াজ তুললে কী এখন প্রাণে মারর হুমকি সহ্য করতে হবে?

Related Articles

Back to top button