আন্তর্জাতিকনতুন খবর

ভিডিওতে দেখুন! করাচির জনবহুল এলাকায় ভেঙে পড়ল PIA-এর যাত্রীবাহী বিমান! সওয়ার ছিলেন ১০৭ যাত্রী

ওয়েব ডেস্কঃ আজ শুক্রবার ে () এক বড়সড় () ঘটে গেলো। ওই বিমান লাহোর থেকে () যাচ্ছিল। পাকিস্তান ইন্টারন্যাশানাল এয়ারলাইন্সের (PIA) এর ফ্লাইট এয়ারপোর্টে ল্যান্ডিং এর আগেই একটি জনবহুল এলাকায় ভেঙে পড়ে। ওই বিমানে মোট ১০৭ জন যাত্রী ছিলেন, তাদের মধ্যে কারোরই বাঁচার আশা খুবই কম। যেই জায়গায় এই বিমান ভেঙে পড়ে, সেটা জনবসতিপূর্ণ এলাকা। তাই মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে অনুমান।

পাকিস্তানি মিডিয়া রিপোর্টস অনুযায়ী, ওই বিমান করাচি এয়ারপোর্টের কাছে জিন্না গার্ডেন এলাকার মডার্ন কলোনিতে ভেঙে পড়ে। প্লেন ভেঙে পড়ার কারণে বেশ কয়েকটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। দুর্ঘটনার পর পাকিস্তানি সেনাকে উদ্ধার কাজ করার জন্য পাঠানো হয়। এই ঘটনার কিছু ছবি সামনে এসেছে, তাঁর মধ্যে একটিতে দেখা যাচ্ছে যে বাড়ির উপর দিয়ে কালো ধোঁয়া বের হচ্ছে।

বিমান দুর্ঘটনার পর ওই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এলাকায় সবাই নিজের ঘর থেকে বেরিয়ে রাস্তায় এসে ভিড় জমায়। মহিলা আর বাচ্চারা নিজেদের প্রাণ বাঁচানোর তাগিদে এদিক ওদিক পালিয়ে যেতে থাকে। ওই দুর্ঘটনার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

পাকিস্তান ইন্টারন্যাশানাল এয়ারলাইন্সের মুখপাত্র আবদুল সাত্তার ঘটনার কথা স্বীকার করেন। পাকিস্তানের স্বাস্থ্য মন্ত্রী বিমান দুর্ঘটনার পর করাচির সমস্ত বড় হাসপাতালে এমার্জেন্সি ঘোশনা করে দেন। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী   (Imran Khan) এই বিমান দুর্ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। উনি বলেন, ‘আমি এই বিমান দুর্ঘটনার কারণে ব্যাথিত হয়েছি। আমি PIA এর সিইও আরশাদ মালিকের সাথে যোগাযোগ রেখেছি, উনি করাচির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন আর উদ্ধার দলের সাথে ঘটনাস্থলেই আছেন। এই ঘটনার কারণ জানতে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Back to top button
Close