নতুন খবরভারতবর্ষরাজনীতি

নিজেরা বিলুপ্তির পথে, এদিকে আমাদের নিয়ে চিন্তা করছে! কংগ্রেসকে তুমুল কটাক্ষ প্রধানমন্ত্রীর

নয়া দিল্লীঃ সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশন ১৯ জুলাই সোমবার শুরু হয়। প্রথম দিনই সংসদে তুমুল হাঙ্গামার কারণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) নতুন মন্ত্রীদের পরিচয় পর্যন্ত করিয়ে দিতে পারেন নি। ১৩ আগস্ট পর্যন্ত চলা এই বর্ষাকালীন অধিবেশনের দ্বিতীয় দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিজেপির সংসদীয় দলকে সম্বোধিত করেন। সেই সম্বোধনে তিনি কংগ্রেসকে একহাতে নিয়ে নিজের সমস্ত নেতাদের বলেন, করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কার কথা মাথায় রেখে তাঁরা যেন গ্রাউন্ড লেভেলে বেশী করে কাজ করেন।

প্রধানমন্ত্রী মোদী সংসদে বিরোধী দলের দ্বারা হাঙ্গামা করা আর অধিবেশনে বাঁধা পৌঁছানোর কারণে চিন্তা জাহির করে বলেন, যখন গোটা মানবজাতি করোনার সংকটের সম্মুখীন, তখন বিরোধী দলের এহেন মনোভাব খুবই দুর্ভাগ্যজনক। প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, চারিদিকে বিলুপ্তির পথে কংগ্রেস, কিন্তু তাঁরা নিজেদের চিন্তা না করে বিজেপির চিন্তা করছে। বিরোধীরা হতাশ বলে আলোচনা করতে চাইছে না। তিনি বলেন, কংগ্রেস আগাগোড়াই অভিযোগের রাজনীতি করে। কংগ্রেস ভারতের বেশীরভাগ রাজ্যেই বিলুপ্তির মুখে, আর এই কারণে তাঁরা চর্চার বদলে হাঙ্গামা করে। প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, অসম, কেরল আর বাংলা সব জায়গায় হেরে গিয়েছে কংগ্রেস, তাও এদের ঘুম ভাঙছে না। ওঁরা নিজেদের চিন্তা না করে আমাদের চিন্তা করছে।

বিজেপির সংসদীয় দলের বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সংসদীয় বিষয়ক মন্ত্র প্রহ্লাদ জোশি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বিরোধীদের মনোভাব নিয়ে চিন্তা ব্যক্ত করেছেন। প্রধানমন্ত্রী চান সংসদে অধিক আর সার্থক চর্চা হোক। এরজন্য বিরোধী দলগুলিকে সেই চর্চায় অংশ নিতে হবে।

জোশি জানান, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন দুই বছর ধরে ভারত করোনার মহামারী সঙ্গে লড়াই করছে। গোটা মানবজাতি এই ভাইরাসের কারণে প্রভাবিত। কিন্তু বিরোধীরা এই কঠিন সময়েও দায়িত্বজ্ঞানহীনদের মতো আচরণ করছে। বিশেষ করে কংগ্রেস।” জোশি বলেন, প্রধানমন্ত্রী সমস্ত সাংসদদের টিকাকরণের জন্য নিজের নিজের সংসদীয় কেন্দ্রে সচেতনতা ছড়ানোর পাশাপাশি কেন্দ্র সরকারের গরিব কল্যাণ যোজনার লাভ গরিবদের কাছে পৌঁছে দেওয়া সুনিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, কেন্দ্র সরকারের তিনটি কৃষি আইন সমেত বিভিন্ন ইস্যুতে বিরোধী দলের হাঙ্গামার কারণে সোমবার সংসদের কাজ মুলতবি হয়ে যায়। এমনকি বিরোধীদের হাঙ্গামার কারণে প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রীপরিষদের সদস্যদের পরিচয়ও করিয়ে দিতে পারেন নি।

Related Articles

Back to top button