Press "Enter" to skip to content

সংযুক্ত রাষ্ট্রে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বললেন, আমরা ১৫০ এর বেশি দেশকে এই মহামারীত সাহায্য করেছি

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) আজ ডিজিটাল মাধ্যম দিয়ে সংযুক্ত রাষ্ট্রের আর্থিক এবং সামাজিক পরিষদ (UNESC) এর উচ্চ স্তরীয় অধিবেশনে ভাষণ দেন। সংযুক্ত রাষ্ট্রের সুরক্ষা পরিষদে ভারতের অস্থায়ী সদস্য হওয়ার পর এটাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রথম ভাষণ ছিল। উনি আজ নিজের ভাষণে করোনা ভাইরাস মহামারী, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, আত্মনির্ভর ভারত, আয়ুষ্মান ভারত যোজনা, সিঙ্গেল ইউজ প্ল্যাস্টিক ব্যান, আর্থিক প্যাকেজ আর সার্ক কোভিড এমার্জেন্সি সমেত অনেক ইস্যু তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে ভারত ১৫০ এর বেশি দেশে চিকিৎসা আর অন্যান্য উপকরণের মাধ্যমে সাহায্য করেছে। আমরা সবার দিকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছি। উনি বলেন, করোনা ভাইরাস মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইকে আমরা জনআন্দোলন বানিয়েছি। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমাদের স্বাস্থ্য প্রণালী গোটা বিশ্বকে এই সংক্রমণ থেকে উদ্ধার করার সবথেকে ভালো দর সুনিশ্চিত করাতে সাহায্য করেছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, ভারত প্রতিটি দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশে মহিলাদের মজবুত করতে যথা সম্ভব চেষ্টা করা হচ্ছে। বিগত ৬ বছরে ডায়রেক্ট বেনিফিশিয়ারি প্রোগ্রাম অনুযায়ী ৪০ কোটি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা দিয়ে সরাসরি মানুষের কাছে সুবিধা পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। উনি বলেন, আমাদের এজেন্ডা ২০৩০ নিয়ে দ্রুত গতিতে কাজ করা হচ্ছে। আমাদের উদ্দেশ্য সবকা সাথ, সবকা বিকাশ আর সবকা বিশ্বাস। এর সাথে সাথে আমরা উন্নয়নশীল দেশ গুলোর সাহায্যও করে চলেছি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, সরকারের তরফ থেকে চালানো খাদ্য সুরক্ষা যোজনার মাধ্যমে ৮০ কোটি মানুষ উপকৃত হয়েছে। দেশের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসে প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার মাধ্যমে ২০২২ পর্যন্ত প্রতিটি নাগরিকের মাথায় ছাদ তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা চরম গতিতে এগিয়ে চলেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন,সরকার গরিবদের জন্য ঘর বানিয়ে দিয়েছে। গরিবদের চিকিৎসার জন্য আমরা আয়ুষ্মান ভারত যোজনা শুরু করেছি।