নতুন খবরভারতবর্ষ

বিমানের মধ্যেও বৈঠক, ৬৫ ঘণ্টার মার্কিন সফরে ২৪টি মিটিং! দিল্লিতে এসে ব্যস্ত প্রধানমন্ত্রী

নয়া দিল্লিঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ৬৫ ঘণ্টার আমেরিকার সফরে ২০টি বৈঠক করেছেন। এছাড়াও ওয়াশিংটনের দীর্ঘ বিমান যাত্রায় তিনি বিমানের মধ্যেই ৪টি বৈঠক করেন। ৬৫ ঘণ্টায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বিমান আর অফিস মিলিয়ে মোট ২৪টি বৈঠক করেন। চার দিনের এই ব্যস্ত যাত্রায় প্রধানমন্ত্রী মোদী সময়ের একদম সঠিক ভাবে ব্যবহারও করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমেরিকা যাওয়ার সময় বিমানের মধ্যেই সরকারি কাজ করা শুরু করে দেন। সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, রবিবার দিল্লি ফেরার দিনেও প্রধানমন্ত্রী অনেক ব্যস্ত থাকবেন। সরকারি সূত্র মতে, প্রধানমন্ত্রী এরকম ধকল সইতে সবসময়ই প্রস্তুত থাকেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২২ সেপ্টেম্বর আমেরিকা যাওয়ার সময় বিমানের মধ্যে দুটি বৈঠক করেন। এরপর তিনি যখন ওয়াশিংটনে নামেন, তখন সেখানে হোটেলে তিনি তিনটি বৈঠক করেন। ২৩ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গ্লোবাল CEOদের সঙ্গে আলাদা আলাদা করে বৈঠক করেন। এরপর তিনি আমেরিকার উপরাষ্ট্রপতি কমলা হ্যারিস, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন আর জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগার সঙ্গে বৈঠক করেন।

এরপর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজের টিমের সঙ্গে ইন্টারনাল মিটিং করেন। ২৪ সেপ্টেম্বর আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জো বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক আর কোয়াড মিটিংয়ের আগে আরও চারটি ইন্টারনাল মিটিং করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমেরিকা থেকে নয়া দিল্লি আসার সময়েও দুটি দীর্ঘ বৈঠক করেন। মার্কিন সফরে ভারতের কতটা লাভ হল, সেই নিয়েও আলোচনা করেন তিনি। রবিবার দিল্লি ফেরার পরেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ব্যস্ত থাকবেন।

দেশে ফেরার ঠিক আগে একটি ট্যুইটে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিগত কয়েকদিনে বিভিন্ন সিইওর সঙ্গে কথাবার্তা আর রাষ্ট্রসংঘে সম্বোধন সহ বহু দ্বিপাক্ষিক এবং বহুপাক্ষিক অনুষ্ঠানে অংশ নিই, যেগুলি ফলদায়ক ছিল। আমার বিশ্বাস আগামী দিনে ভারত-আমেরিকার সম্পর্ক আরও মজবুত হবে।”

Related Articles

Back to top button