ভারতবর্ষ

১৫-১৮ বছরের বাচ্চাদের ভ্যাকসিন, তৃতীয় ডোজকে স্বীকৃতি! দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বড় বার্তা প্রধানমন্ত্রীর

নয়া দিল্লিঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র আজ করোনা বিপদ নিয়ে দেশবাসীকে সতর্ক করেন। নিজের ভাষণে প্রধানমন্ত্রী দেশের জনতাকে চিন্তা না করে সতর্ক থাকার বার্তা দিয়েছেন। গোটা বিশ্ব তথা ভারতে করোনার নতুন রূপ ওমিক্রনের আতঙ্ক বেড়ে চলেছে। আর এই নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আজ দেশবাসীকে উদ্দেশ্যে করে বড় ঘোষণা করেন।

প্রধানমন্ত্রী জানান, ১৫ থেকে ১৮ বছরের বাচ্চাদের এবার ভ্যাক্সিনেশন শুরু হবে। ২০২২ এর ৩ জানুয়ারি সোমবার থেকে এই টিকাকরণ অভিযান শুরু হবে। এটি করোনা যুদ্ধকে আরও শক্তিশালী করবে। স্কুল, কলেজের বাচ্চাদের অভিভাবকদের চিন্তাও দূর করবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে শীঘ্রই নাকের টিকা এবং বিশ্বের প্রথম ডিএনএ ভ্যাকসিন শুরু হবে। দেশকে নিরাপদ রাখতে এবং দেশবাসীকে নিরাপদ রাখতে আমরা নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়েছি। যখন টিকা দেওয়া শুরু হয়েছিল, তখন বৈজ্ঞানিক ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল যে কাকে প্রথম ডোজ দেওয়া উচিত, ভ্যাকসিনের ডোজের ব্যবধান কত হওয়া উচিত এবং যারা অসুস্থতায় ভুগছেন তাদের কখন টিকা নেওয়া উচিত, এই ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল এবং পরিস্থিতি সামাল দিতে সহায়ক বলে প্রমাণিত হয়েছে। পরিস্থিতি অনুযায়ী, ভারত শুধুমাত্র বিজ্ঞানীদের পরামর্শেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের সবারই অভিজ্ঞতা আছে যারা করোনা যোদ্ধা, স্বাস্থ্যসেবা এবং ফ্রন্টলাইন কর্মী, এই লড়াইয়ে দেশকে নিরাপদ রাখতে তাদের বিরাট অবদান রয়েছে। আজও তাঁরা করোনা রোগীদের সেবায় তার অনেকটা সময় ব্যয় করেন। তাই, সতর্কতার দৃষ্টিকোণ থেকে, সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে স্বাস্থ্যসেবা এবং ফ্রন্টলাইন কর্মীদের জন্যও ভ্যাকসিনের সতর্কতা ডোজ শুরু করা হবে। এটি ২০২২ এর ১০ জানুয়ারি সোমবার থেকে শুরু হবে।

Related Articles

Back to top button