নতুন খবরভারতবর্ষ

পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য ভারতের প্ল্যান রেডি, আশঙ্কায় দিন কাটাচ্ছেন ইমরান খান

ওয়েবডেস্কঃ করোনা ভাইরাসের সঙ্কটের সময় ভারত (India) বিশ্বের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। কাউকে ওষুধ পাঠিয়ে সাহায্য করা হচ্ছে, আবার কোন দেশের যাত্রী অন্য কোথাও আটকে থাকলে, তাদেরও উদ্ধার করে আনছে ভারত। কিন্তু পাকিস্তান (Pakistan) এই সঙ্কটের সময় কি করছে? প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) যেকোন আন্তর্জাতিক মঞ্চে গিয়েই পাকিস্তানকে (Pakistan) তাদের ক্ষমতা বুঝিয়ে দেয়। এবার ভারত পিওকে (PoK), গিলগিট-বাল্টিস্তানের (Gilgit-Baltistan) আবহাওয়ার ভবিষ্যৎবানী করার পর থেকেই পাকিস্তানের আতঙ্ক আরও বেড়ে গেছে।

ভারত সম্প্রতি পাকিস্তানের পিওকে আর গিলগিট-বাল্টিস্তানের আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলা শুরু করেছে। ভারত পাকিস্তানকে জানিয়ে দেয় যে পিওকে (পাক অধিকৃত কাশ্মীর) আমাদের, সেখানকার আবহাওয়াও আমাদের। আর ভারত পিওকের ঘর ওয়াপসির দিকে প্রথম পদক্ষেপ নিয়েছে।

করোনার ভাইরাসের মধ্যেও পাকিস্তানকে জবাব দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মেজাজ এখনো সেই আগের মতই আছে। NAM এর দেশের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সন্ত্রাসবাদের কথা উল্লেখ করেন আর পাকিস্তানের নাম নেওয়া ছাড়া বলেন, কিছু মানুষ সন্ত্রাসের প্রাণঘাতী ভাইরাস, ভুয়ো খবর আর ভুয়ো ভিডিও ছড়াতে ব্যস্ত।

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারত পাকিস্তানকে পরামর্শ দিয়ে বলেছিল, তাঁরা ভাবুক-বুঝুক আর দেশের উন্নতির জন্য কাজ করুক। সন্ত্রাসবাদের চরিত্র বদলাক। কিন্তু করোনার মধ্যে পাকিস্তান তাদের কুকীর্তি চালিয়েই যাচ্ছে। আর এই কুকীর্তির কারণে পাকিস্তান কাশ্মীরের স্বপ্ন দেখতে দেখতে এবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সাথে সাথে গিলগিট-বাল্টিস্তানকেও হারাতে চলেছে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আবারও বিশ্বের দরবারে কাকুতি মিনতি করছে আর বলছে আমাদের বাঁচাও। উনি সম্প্রতি বলেছেন, পাকিস্তানকে নিশানা বানানো ভারতের লাগাতার প্রয়াসকে আমি বিশ্বের সামনে তুলে ধরব।

কাশ্মীর নিয়ে মার এখনো ইমরান খানের বুকে বিঁধে আছে। এবার পিওকে, গিলগিট নিয়ে চরম আশঙ্কায় দিন কাটাচ্ছেন ইমরান খান। হান্দওয়ারায় জঙ্গি পাঠানোর আগে পাকিস্তানের ভাবা উচিৎ ছিল। এবার ভারতের ক্রোধের সুনামি আসবে আর সেই সুনামিতে পাকিস্তান খড়কুটোর মতো ভেসে যাবে। ভারত যেটা বলেছিল, এবার পাকিস্তানের কুকীর্তির পর সেটাই করা শুরু করে দিল।

Related Articles

Back to top button