অপরাধনতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

মারধর-গালিগালাজ, হামলা! মালদার পুজো মণ্ডপে দাদাগিরি পুলিশের

মালদাঃ বাড়ি লাগোয়া দুর্গা মণ্ডপ। আর তাতে রাতের বেলায় চলছিল তারস্বরে গান। মাইকের আওয়াজে অসুবিধে হচ্ছিল ঘুমের। আর এরপরই পুলিশের উর্দি পরেই মণ্ডপে ভাঙচুর চালান পুলিশ কর্মী সুদীপ্ত ভগত। পুরাতন মালদার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের আদরশপল্লির এই ঘটনায় এলাকাবাসীর মনে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, কয়েকমাস আগেই পুলিশের SI পদে চাকরি পেয়েছিলেন সুদীপ্তবাবু। বর্তমানে উনি ট্রাফিক পুলিশের পদে কর্মরত। সুদীপ্তবাবুর বাড়ির পাশেই হচ্ছে দুর্গা পুজো। নবমীর দিন রাতে দীর্ঘক্ষণ পর্যন্ত আদর্শপল্লি সহ মালদার বিভিন্ন পুজো মণ্ডপে দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল।

জনসমাগমের কারণে বাজছিল মণ্ডপের মাইকও। আর সেই কারণেই রাত ১টা নাগাদ মণ্ডপে পুলিশের বেশে উপস্থিত হন সুদীপ্তবাবু। ওনার বিরুদ্ধে পাড়ার লোক ও পুজো কর্তৃপক্ষকে গালিগালাজ করার অভিযোগ ওঠে। এছাড়াও ওনার বিরুদ্ধে মণ্ডপে ভাঙচুর করারও অভিযোগ ওঠে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে যাওয়ার আগেই মঙ্গলবাড়ি ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে চলে আসে।

এলাকার বাসিন্দারা জানান, কিছুদিন আগে পুলিশের চাকরি পাওয়া সুদীপ্ত ভগত উর্দির জোর দেখিয়ে প্রথমে মাইকম্যানকে মারধর করে। এরপর তাঁকে আটকালে পাড়ার সবাইকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এমনকি দুর্গা মন্দিরে আগুন লাগানোরও চেষ্টা করে সে। আমরা সুদীপ্তর কড়া শাস্তি চাই।

Related Articles

Back to top button