নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

ভোট পরবর্তী হিংসার তদন্তে মানবাধিকার কমিশনের কমিটি গঠনের নির্দেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মুখ্যমন্ত্রী

কলকাতাঃ রাজ্যের ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বারবার সরব হয়েছে প্রধান বিরোধী দল বিজেপি। রাজ্যের রাজ্যপালও ভোট পরবর্তী হিংসায় বারবার রাজ্য সরকারকে নিশানা করে এসেছে। এমনকি দিল্লীতে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছেও নালিশ জানিয়েছেন রাজ্যপাল। আর এরই মধ্যে বাংলার ভোট পরবর্তী হিংসার তদন্তের জন্য গথির জাতীয় মানবাধিকার কমিশন গঠনের নির্দেশ প্রত্যাহারের দাবিতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হল রাজ্য সরকার। সোমবার এই মামলার শুনানি হওয়ার কথা।

গত সোমবার বিজেপির প্রতিনিধি মণ্ডলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার পর রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্য সরকারকে দুষে বলেছিলেন যে, ‘বাংলায় গণতন্ত্র নিঃশ্বাস নিতে পারছে না।” এরপরই তিনি আচমকাই মঙ্গলবার দিল্লী সফর নির্ধারণ করেন। এমনকি দিল্লী যাওয়ার আগেও তিনি রাজ্য সরকারকে ভোট পরবর্তী হিংসা এবং আইনশৃঙ্খলা নিয়ে রাজ্যকে তোপ দাগেন।

দিল্লী গিয়ে রাজ্যপাল একাধিক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি এবং জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তিনি। এরপর তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন রাজ্যপাল। সমস্ত বৈঠক সেরে শুক্রবার বাংলায় ফিরে আসার কথা ছিল ওনার। কিন্তু সেখানেও আচমকাই সফরসূচিতে বদল এনে আবারও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তিনি। বাংলার বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে অমিত শাহের কাছে উদ্বেগও প্রকাশ করেন তিনি।

রবিবার ভোট পরবর্তী হিংসার অভিযোগ নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে আবারও একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছে। দায়ের হওয়া সেই মামলার জেরে রাজ্য সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল আদালত। ভোট পরবর্তী হিংসার তদন্তে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকে একটি কমিটি গঠন করার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। আর এবার রাজ্য সেই নির্দেশের বিরুদ্ধে আদালতে পাল্টা হলফনামা দাখিল করল।

Related Articles

Back to top button