নতুন খবর

যে দলিতের বাড়িতে যোগী আদিত্যনাথ খেয়েছিলেন খাবার! তাকে দেওয়া হল ভূমিপূজনের প্রথম প্রসাদ

বুধবার অযোধ্যায় যা হয়েছে তা নিঃসন্দেহে হিন্দুদের জন্য একটা বড়ো স্বপ্নের বাস্তবায়ন ছিল। ৫০০ বছর ধরে হিন্দু সমাজ যে স্বপ্নকে মনের মধ্যে লালিত পালিত করেছিল তা ৫ আগস্ট পূরণ হয়েছে। দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রমোদী স্বয়ং উপস্থিত থেকে মন্দির নির্মাণের প্রথম ভিত্তি রেখেছেন।

ভূমিপূজনের পর দেশজুড়ে হিন্দুরা এই আনন্দ উপভোগ করেছে। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ নিজে আতশবাজি জ্বালিয়ে হিন্দুদের বড়ো ইঙ্গিত দিয়েছেন। যদিও কিছু কিছু রাজ্যে রাজ্য সরকারের উপদ্রবের কারণে হিন্দুরা তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়েছে। কিছু কিছু রাজ্যে হিন্দুদের পুলিশ দ্বারা দমন করা হয়েছে, আস্থার উপর আঘাত করা হয়েছে।

ভূমিপূজনের পর সেখানে উপস্থিত সকলকে প্রসাদ বিতরণ করা হয়েছিল। তবে প্রসাদ বিতরণ নিয়ে এখন নতুন খবর সামনে আসছে যা হিন্দু সমাজকে আরো আনন্দিত করেছে। আসলে ভূমি পূজনের পর প্রসাদ বেশকিছু নির্বাচিত লোকজনের মধ্যেও বিতরণ করা হয়েছিল।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, রামমন্দিরের ভূমি পূজনের প্রসাদ দলিত পরিবারে বিতরণের মধ্যে দিয়ে শুরু হয়েছিল।অযোধ্যার বাসিন্দা মহাবীর মিস্ত্রীকে প্রথম প্রসাদ দেওয়া হয়েছিল। স্মরণ করিয়ে দি, ২০১৯ সালে আলী ও বজরংবলী সংক্রান্ত এক ভাষণের জন্য যোগী আদিত্যনাথের উপর নির্বাচন প্রচারে কিছু ঘন্টার নিষেধাজ্ঞা লাগনো হয়েছিল।

ওই সময় হনুমানগড়ি ভ্রমনের পথে এই দলিত পরিবারের বাড়ি গিয়েছিলেন। মহাবীর মিস্ত্রির বাড়িতে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ গুড় দিয়ে জল খেয়েছিলেন। একইসাথে সবজি দিয়ে রুটি খেয়েছিলাম। ইঙ্গিত স্পষ্ট ছিল, হিন্দু একতা। হিন্দুদের একতার মধ্যে জাত,পাত, ভাষা, গরিব ধনীর ভেদাভেদ, স্ট্যাটাস কোনোকিছু থাকবে না। এখন

Back to top button
Close