নতুন খবরভারতবর্ষ

আজানের আওয়াজে সমস্যা নিয়ে অভিযোগ পড়ুয়ার, উচিৎ পদক্ষেপের আশ্বাস দিল ইউপি পুলিশ

বারাণসীঃ উত্তর প্রদেশে মসজিদে মাইকে আজান চালানো নিয়ে আরও একটি মামলা সামনে এসেছে। এবার নরেন্দ্র মোদীর সংসদীয় এলাকা বারাণসী থেকে সামনে এসেছে। কাশী হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র টুইট করে বারাণসী পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছিল। ছাত্র জানিয়েছিল, মসজিদের মাইকে আজান শোনানোয় তাঁর সমস্যা হচ্ছিল। ছাত্রের টুইটের পর পুলিশ পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেয়।

এর আগে এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রোফেসর সঙ্গীতা শ্রীবাস্তব মসজিদ থেকে মাইকে করে আজান শোনানো নিয়ে আপত্তি জাহির করে জেলাশাসক কে চিঠি লিখেছিলেন।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, কাশী হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র করুনেশ পাণ্ডে একটি টুইট করে লিখেছিল যে, সে বারাণসীর ভদৈনি এলাকায় একটি বাড়ি ভাড়া করে থাকে। করুনেশ জানায়, বাড়ির পাশেই একটি মসজিদ আছে, আর সেখান থেকে প্রতিদিন সকাল, দুপুর, বিকেল, রাতে লাউডস্পীকারে জোরে জোরে চেঁচানর ফলে তাঁর মানসিক সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।

করুনেশ টুইটে লেখে, আমি আবেদন করছি যে, আমার এই সমস্যার সমাধানের জন্য উচিৎ পদক্ষেপ নেওয়া হোক। করুনেশ সেই টুইটে বারাণসী পুলিশ বিভাগকে ট্যাগ করে। করুনেশের টুইটের জবাবে বারাণসী পুলিশ লেখে, আপনার সমস্যার সমাধানের জন্য নির্দেশ জারি করা হয়েছে। বারাণসী পুলিশের তরফ থেকে একজন অফিসারের মোবাইল নম্বরও করুনেশকে টুইটের মাধ্যমে দেওয়া হয়।

এর আগে এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সঙ্গীতা শ্রীবাস্তব বাড়ির পাশে থাকা একটি মসজিদ থেকে ভোরের আজানের আওয়াজ ওনার ঘুমের ব্যাঘাতের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে অভিযোগ করেছিলেন। উপাচার্য এলাহাবাদের জেলাশাসককে চিঠি লিখে অভিযোগ করেছেন যে, আজানের আওয়াজের কারণে ওনার ঘুম উড়েছে। তিনি এলাহাবাদ হাইকোর্টের একটি নির্দেশের কথা উল্লেখ করে বলেছেন যে, জেলাশাসক আদালতের নির্দেশ পালন করে পদক্ষেপ নেবেন।

 

Related Articles

Back to top button