অপরাধনতুন খবর

বাংলার পর দিল্লী! বাস আর ফায়ার ব্রিগেডের গাড়িতে আগুন লাগিয়ে দিলো মুসলিম ছাত্ররা

লোকসভা আর রাজ্যসভা থেকে পাশ হওয়ার পর নাগরিকতা সংশোধন বিলে (CAB) রাষ্ট্রপতিও সই করেছেন। এরপর গোটা দেশ জুড়ে নাগরিকতা সংশোধন বিলের বিরুদ্ধে অশান্তি ছড়াচ্ছে বিশেষ সম্প্রদায় ভুক্ত মানুষেরা। তিনদিন ধরে এই বিক্ষোভের আগুনে জ্বলছে গোটা বাংলা। আর আজ রবিবার হিংসার আগুন দেখা যায় রাজধানী দিল্লীতেও। রবিবার দিল্লীর (Delhi) আখোলা শাহিন বাগ এলাকায় নাগরিকতা আইনের বিরুদ্ধে প্রচুর মানুষ বিক্ষোভ দেখান।

এর সাথে সাথে জামিয়া মিল্লিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা কালিন্দী কুঞ্জ রোডে চরম বিক্ষোভ প্রকাশ করে, আর সরকার বিরোধী স্লগান দিতে থাকে। এই বিক্ষোভে আন্দোলনকারীরা তিনটি বাসে আগুন ধরিয়ে দেয় আর একটি ফায়ার ব্রিগেডের গাড়িতে ভাঙচুর চালায়। আগুন নেভানোর জন্য ওই ফায়ার ব্রিগেডের গাড়ি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল।

আরেকদিকে, বিক্ষোভের কারণে দিল্লী ট্র্যাফিক পুলিশ আখোলা আন্ডারপাস থেকে শুরু করে সরিতা বিহার পর্যন্ত রাস্তা বন্ধ করে দেয়। আর ওই রাস্তায় যাতে কোন যানবাহন না যায়, তাঁর জন্য একটি অ্যাডভাইসরি জারি করে পুলিশ। বিক্ষোভকারীরা মথুরা রোডের উল্টোদিকে নিউ ফ্রেন্ডস কলোনির সমস্ত রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে।

বিক্ষোভকারীদের দেখা আশেপাশের অনেক দোকানদার নিজেদের দোকান বন্ধ করে নেয় ভয়ে। রাস্তায় বিক্ষোভকারীদের হিংস্বাত্মক রুপ দেখে আশেপাশের এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। গোটা রাস্তায় চরম জ্যামের সৃষ্টি হয়। ছোট বড় সব গাড়িই জ্যামের মধ্যে ফেসে যায়। জামিলা মিল্লিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের হিংস্বাত্মক রুপ দেখে পুলিশ তাঁদের উপর লাঠি চালাতে বাধ্য হয়। আরেকদিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জানায় যে, যেহেতু এই আন্দোলন বিস্ববিদ্যালয় পরিসরের বাইরে হয়েছে, সেহেতু এখানে অনেক বহিরাগতরা ঢুকে অশান্তি সৃষ্টি করেছে।

Related Articles

Back to top button