Press "Enter" to skip to content

আম্বালা এয়ারবেসে অবতরণ করল রাফাল, দেখুন এক্সক্লুসিভ ভিডিও

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ ভারতীয় বায়ুসেনা (Indian Air force) দীর্ঘদিন ধরে যেই লড়াকু বিমান রাফালের (Rafale) অপেক্ষা করছিল, সেটি অবশেষে আজ ভারতের মাটিতে অবতরণ করল। ফ্রান্সের সাথে হওয়া চুক্তি অনুযায়ী, রাফাল লড়াকু বিমানের প্রথম খেপ হরিয়ানার আম্বালা এয়ারবেসে (Ambala Air Force Station) পৌঁছে গেছে। এই পাঁচটি রাফাল বিমান রিসিভ করার জন্য এয়ার চীফ মার্শাল আরকেএস ভাদোরিয়া আম্বালা এয়ারবেসে পৌঁছেছেন। সুরক্ষার কারণে আম্বালাতে সকাল থেকেই ১৪৪ ধারা জারি ছিল।

২৭ জুলাই ফ্রান্সের মেরিগ্রাক বেস থেকে ৫ টি রাফাল বিমান ভারতের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। লাগাতার সাত ঘণ্টা বিমান উড়িয়ে গতকাল সন্ধ্যেয় UAE এর রাজধানী আবুধাবির পাসে আল দফরা এয়ারবেসে পৌঁছায় রাফাল গুলো। এরপর সেখানে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থাও করা হয়। যদিও আমেরিকার মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, রাফাল বিমান গুলো ওই এয়ারবেসে থাকাকালীন ইরানের তিনটি মিসাইল পরপর বিমানবন্দের পাশে এসে পড়ে। যদিও এই ঘটনায় বিমানের কোন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

উল্লেখ্য, ইরান হরমুজে যুদ্ধঅভ্যাস শুরু করেছে। আল দাফরা এয়ারবেস UAE এর রাজধানী আবুধাবি থেকে মাত্র এক ঘণ্টা দূরত্বে অবস্থিত। আর এটা আমেরিকা এবং ফ্রান্সের সেনার বেস হাউসও। এই ঘটনার পর আল দাফরা এয়ারবেসকে হাই অ্যালার্টে রাখা হয়েছে। আমেরিকার সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, UAE এর আল দাফরা এয়ারবেস আর কাতারের আল উদীদ এয়ারবেস নিয়ে অ্যালার্ট জারি করে বলা হয়েছিল যে, মিসাইল সম্ববত ওই দিকে এগিয়ে আসছে। সিএএন জানায়, সেখানকার আধিকারিকদের কভার করার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছিল, কিন্তু কোন মিসাইল এয়ারবেসে এসে পড়েনি।

ফক্স নিউজ এই ঘটনার কথা স্বীকার করে বলে, মধ্য পূর্বের দুটি আস্তানায় আমেরিকার সৈনিক আর বিমান গুলোকে হাই অ্যালার্টে রাখা হয়েছিল, কারণ তিনটি ইরানি মিসাইল এয়ারবেসের পাশে পড়েছে। শোনা যায় যে, ইরান ওই এলাকায়সৈন্য অভ্যাস করছিল। এর আগে মঙ্গলবার সেফ নিউজ ইরানের রেভুল্যুশনারি গার্ড-এর একটি স্পীডবোটের ছবি জারি করেছিল, ওই স্পীডবোট থেকে জুলাইয়ে একটি সৈন্য অভ্যাসের সময় মিসাইল ফায়ার করা হয়েছিল।