নতুন খবররাজনীতি

মোদীর ক্ষমতা থাকলে নিরাপত্তা ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে দেখাকঃ রাহুল গান্ধী

নাগরিকতা সংশোধন আইন আর রাষ্ট্রীয় নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে কংগ্রেসের সভাপতি সনিয়া গান্ধীর ডাকা বৈঠকে মোট ২০ টি বিরোধী দল অংশ নিয়েছিল। বিরোধী দলের এই বৈঠকে কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি তথা কেরলের ওয়ানাড থেকে কংগ্রেসের সাংসদ রাহুল গান্ধী অনেক ইস্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উপর হামলা করেন। রাহুল গান্ধী প্রধানমন্ত্রীর উপর দেশ ভাগের অভিযোগ তুলে ওনাকে জওহর লাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার চ্যালেঞ্জ দিয়ে ফেলেন।

রাহুল গান্ধী বলেন, মোদী সরকার যুবদের সমস্যা সমাধানের জায়গায় দেশকে বিচলিত করার আর ধর্মের নামে মানুষকে বিভাজন করার চেষ্টা করছে। রাহুল গান্ধী বলেন, যুবদের আওয়াজ বৈধ, সরকার উচিৎ যুবদের কণ্ঠরোধ না করে তাঁদের আওয়াজ শোনার।

রাহুল গান্ধী বলেন, নরেন্দ্র মোদী যুবদের হিম্মত করে বলুক যে দেশের অর্থব্যবস্থা বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে। মোদীজির ক্ষমতা নেই ছাত্রদের সামনে গিয়ে দাঁড়ানোর। আমি ওনাকে দেশের যেকোন বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছি। উনি বিশ্ববিদ্যালয়ে নিরাপত্তা ছাড়াই যাক আর সেখানে গিয়ে বলুক উনি দেশের জন্য কি করছেন।

কংগ্রেস দ্বারা ডাকা এই বৈঠকে দলের সভাপতি সনিয়া গান্ধী, প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী, এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার, কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা আহমেদ প্যাটেল আর গুলাম নবী আজাদ। মার্ক্সবাদী কমিউনিস্ট পার্টির নেতা ডি রাজা, রাষ্ট্রীয় লোক দলের অজিত সিং সমেত ২০ দলের নেতা অংশ নিয়েছিলেন। এই বৈঠকে শিবসেনা, আম আদমি পার্টি, তৃণমূল কংগ্রেস, সমাজবাদী পার্টি, এআইডিএমকে আর বহুজন সমাজ পার্টির কোন নেতা অংশ নেননি।

Back to top button
Close