Press "Enter" to skip to content

মোদীকে আক্রমণ করতে গিয়ে ভারতকে ধর্ষণের রাজধানী বলে সম্বোধন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর!

শেয়ার করুন -

কংগ্রেসের (Congress) প্রাক্তন সভাপতি তথা কেরলের ওয়ানাড (Wayanad) থেকে কংগ্রেসের সাংসদ রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) নিজের সংসদীয় এলাকার সফরে গিয়ে দেশে বাড়তি হিংসার জন্য কেন্দ্রের মোদী সরকারকে (Modi Sarkar) দায়ী করেন। উনি বলেন, সবাই নিজের হাতে আইন তুলে নিচ্ছে আর তাঁর প্রধান কারণ হল দেশকে যিনি চালাচ্ছেন তিনি নিজে হিংসায় বিশ্বাস করেন। উনি এও বলেন, ভারতকে এখন গোটা বিশ্ব ধর্ষণের রাজধানী রুপে দেখে।

রাহুল গান্ধী বলেন, ‘ভারত এখন গোটা বিশ্বে ধর্ষণের রাজধানী রুপে খ্যাত। অন্যান্য দেশে প্রশ্ন ওঠে যে, ভারত কেন নিজের মা বোনেদের সুরক্ষা দিতে অক্ষম। উত্তর প্রদেশের এক বিজেপি বিধায়ক মহিলাকে ধর্ষণ করে জেলে আছে। আর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই নিয়ে একটি বাক্যও খরচ করেননি।”

কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী বলেন, আপনারা দেশ জুড়ে হিংসার বৃদ্ধি দেখেছেন। অরাজকতা আর মহিলাদের বিরুদ্ধে অত্যাচার বেড়েই চলেছে। রোজই খবরে দেখা যায় যে, মহিলাদের ধর্ষণ, শ্লীলতাহানি আর মারধর হচ্ছে। সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে হিংসা বেড়ে চলেছে। তাঁদের বিরুদ্ধে হিংসাকে উস্কানি দেওয়া হচ্ছে। দলিতদের সাথে অন্যায় হচ্ছে, তাঁদের মারধর করা হচ্ছে। তাঁদের হাত কেটে দেওয়া হচ্ছে।

রাহুল গান্ধী বলেন, আদিবাসীদের সাথে অত্যাচার করা হচ্ছে। তাঁদের জমি কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। হিংসা দিনদিন বেড়েই চলেছে। আমাদের সংস্কৃতি ভেঙে যাচ্ছে। মানুষ নিজের হাতে আইন তুলে নিচ্ছে। আর এটা হচ্ছে তাঁর প্রধান কারণ হল, যেই মানুষটি এই দেশকে চালাচ্ছে তিনি হিংসাতে বিশ্বাস করেন অহিংসাতে না।