নতুন খবরভারতবর্ষরাজনীতি

রাজস্থানের রাজনীতিতে নয়া মোড়, ১৯ বিধায়ক মিলে ডাকলেন বৈঠক

জয়পুরঃ রাজস্থানের (Rajasthan) মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট (Ashok Gehlot) আর প্রাক্তন উপ মুখ্যমন্ত্রী সচিন পাইলটের (Sachin Pilot) মধ্যে রাজনৈতিক সংগ্রাম কমার নামই নিচ্ছে না। পাইলটের পক্ষে কংগ্রেস নেতা অজয় মাকেনের একটি বয়ানের পর গেহলটের সমর্থকরা চটে গিয়েছে। আর এবার কংগ্রেস হাই কম্যান্ডের উপর চাপ সৃষ্টি করতে বহুজন সমাজ পার্টি থেকে কংগ্রেসে যাওয়া আর নির্দলীয় বিধায়করা বৈঠক ডেকেছেন।

২৩ জুন জয়পুরের অশোকা হোটেলে এই বৈঠক হওয়ার কথা। সুত্র অনুযায়ী, গেহলট গ্যাং নতুন রণনীতি বানিয়ে পাইলট গ্যাংয়ের লোকেদের বেশি প্রাধান্য দেওয়ার বিরুদ্ধে আবহাওয়া সৃষ্টি করবে। ২৩ জুন এই বৈঠকে ছয়জন বিএসপি থেকে কংগ্রেসে যাওয়া বিধায়ক এবং ১৩ জন নির্দলীয় বিধায়ক অংশ নেবেন।

শোনা যাচ্ছে যে, এই বৈঠকে বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, মন্ত্রীমণ্ডলের বিস্তার, রাজনৈতিক নিযুক্তি নিয়ে চর্চা হয়েছে। বলে দিই, বহুজন সমাজ পার্টি থেকে কংগ্রেসে যাওয়া বিধায়ক আর নির্দলীয় বিধায়ক লাগাতার সচিন পাইলট আর তাঁর সমর্থকদের উপর আক্রমণ করছেন। এমনকি সচিন পাইলটকে গদ্দার পর্যন্ত বলছেন।

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট আর সচিন পাইলটের মধ্যে চলা রাজনৈতিক সংগ্রামের খবর কংগ্রেস হাইকম্যান্ডেরও কানে পৌঁছেছে। এছাড়াও এও জানা যাচ্ছে যে, কংগ্রেস এই রাজনৈতিক সংকটের নিষ্পত্তির জন্য সচিন পাইলটকে দলের মহাসচিব পদের অফার দিতে পারে। যদিও, এর আগেও পাইলটকে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল।। কিন্তু তিনি তা অস্বীকার করে দিয়েছিলেন।

এও শোনা যাচ্ছে যে, গেহলট সরকারে যেই মন্ত্রীপদগুলি খালি আছে পাইলট সেখানে নিজের সমর্থক বিধায়কদের বসাতে চাইছেন। বর্তমানে রাজস্থান সরকারে ৯টি মন্ত্রীপদ খালি আছে, সচিন পাইলট চাইছেন সেখানে কমপক্ষে ৬ থেকে ৭ জন নিজের সমর্থককে বসাতে চাইছেন। আরেকদিকে, গেহলট সমর্থকরাও ওই পদগুলিতে নজর লাগিয়ে বসে আছে।

Related Articles

Back to top button