Press "Enter" to skip to content

রামমন্দির ট্রাস্ট গঠনের পস্তুতি শুরু! ট্রাস্ট নির্মাণ করতে বিল আনবে মোদী সরকার!

শেয়ার করুন -

অযোধ্যা মামলায় সুপ্রিম কোর্টের আদেশ অনুযায়ী, কেন্দ্র সরকার রাম মন্দির ট্রাস্ট গঠনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। তথ্য মতে রাম মন্দির ট্রাস্ট সম্পর্কিত বিলটি সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে আনা হবে। এটি ট্রাস্টের ক্ষমতা এবং অধিকারের কথা উল্লেখ করবে। কোন কোন ব্যক্তিকে ট্রাস্টে অন্তর্ভুক্ত করা হবে তাও জানানো হবে। বলা হচ্ছে, রাম জন্মভূমি নিয়াসের সাথে নির্ধারিত আখড়াকেও এই ট্রাস্টের প্রতিনিধিত্ব দেওয়া হবে। এছাড়াও একজন অবসরপ্রাপ্ত বিচারককেও দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে। এদিকে, ভিএইচপি বলেছে যে রাম মন্দির নির্মাণের জন্য যে ট্রাস্ট তৈরি করা হবে তাতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত।

ভিএইচপির মুখপাত্র শারদ শর্মা বলেছেন যে আমরা মনে করি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ এবং উত্তর প্রদেশের সিএম যোগী আদিত্যনাথকেও এই ট্রাস্টে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত। সোমনাথ ট্রাস্টের আদলে রাম মন্দির ট্রাস্ট গঠন করা উচিত। এর আগে, রামজন্মভূমি নিয়সের প্রধান মহন্ত নৃত্য গোপালদাস বুধবার বলেছিলেন যে সুপ্রিম কোর্টের আদেশ অনুযায়ী রাম মন্দিরের জন্য সরকারকে নতুন আস্থা তৈরি করার দরকার নেই কারণ এটি ইতিমধ্যে রাম জন্মভূমি নিয়াস হিসাবে বিদ্যমান রয়েছে।

জনিয়ে দি, রামজন্মভূমি মামলায় রায় আসার আগে দেশের জনতা বলেছিল যে আদালত যা রায় দেবে সেটাই তারা মাথা পেতে নেবে। এমনকি রায় আসার পরেও জনগণ শান্তির সাথে আদালতের রায় মেনে নিয়েছে। বেশিরভাগ সংবাদ মাধ্যম দেশে পজেটিভ বার্তা দিয়ে শান্তি বজায় রাখতে সাহায্য করেছিল। অবশ্য কিছু মিডিয়া দাঙ্গা লাগানোর প্রয়াস করেছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে সব মিলিয়ে উত্তরপ্রদেশ সহ পুরো দেশে রায় আসার পরেও শান্তি বার্তা বজায় ছিল।