নতুন খবর

ভারত ছাড়া পাকিস্তান ক্রিকেটের অস্তিত্ব নেই, ওদের টাকায় চলছি আমরা! স্বীকারোক্তি রামিজ রাজার

নয়া দিল্লিঃ পাকিস্তান ক্রিকেট এই মুহূর্তে বড় দুঃসময়ের মধ্য দিয়ে চলেছে। একের পর এক সফর বাতিল করেছে নিউজিল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড। যার জেরে এই মুহূর্তে বোর্ডের অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে চলছে বিশাল ডামাডোল। অন্যদিকে ক্রিকেটের ক্ষেত্রে ভারত একটি অত্যন্ত শক্তিশালী দেশ। ক্রিকেটের অর্থনীতিতেও ভারতের যোগদান যথেষ্ট বেশি। এবার এই নিয়েই মুখ খুললেন পিসিবি চিফ রামিজ রাজা।

নিউজিল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড ট্যুর বাতিল করার পর থেকেই রামিজ যথেষ্ট আক্রমণাত্মক প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। কার্যত তিনি এও জানিয়েছিলেন আগে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের প্রধান লক্ষ্য হত, ভারতকে পরাজিত করা। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলো নিউজিল্যান্ড এবং ইংল্যান্ডও। আসন্ন বিশ্বকাপে তাদের হারিয়ে বদলা নেবার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে পাকিস্তান। ফের একবার এই নিয়ে বয়ান দিতে গিয়ে তিনি বলেন, “যদি আমাদের ক্রিকেট অর্থনীতি শক্তিশালী হত, তাহলে আমাদের এভাবে ব্যবহার করা হতো না। নিউজিল্যান্ড এবং ইংল্যান্ডের মতো দলগুলোও আমাদের সঙ্গে এমন কাজ করতে পারত না।”

তিনি বলেন, “পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ড আইসিসির পঞ্চাশ শতাংশ ফান্ডিংয়ে পরিচালিত হয়। একই সঙ্গে দেখতে গেলে, আইসিসির ৯০ শতাংশ তহবিল আসে ভারত থেকে। আমি ভয় পাচ্ছি ভারত যদি আইসিসিকে অর্থায়ন করা বন্ধ করে দেয়, তাহলে পাকিস্তান ক্রিকেট পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যেতে পারে। কারণ পাকিস্তান আইসিসিকে শূন্য শতাংশ তহবিল দেয়।” তার মতে এই কারণেই পিসিবিকে স্বয়ংসম্পূর্ণ হতে হবে। আগামী দিনে নাহলে অন্যান্য দেশ গুলি পাকিস্তানের সঙ্গে ক্রিকেট খেলতে নাও চাইতে পারে। রামিজ রাজা বলেন, ‘ভারতের প্রধানমন্ত্রী যদি সিদ্ধান্ত নেন যে, তিনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের অর্থের জোগান বন্ধ করে দেবেন, তাহলে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড ভেঙে পড়তে পারে।”

রামিজের মতে, সেরা ক্রিকেট দল তৈরী করা আর ক্রিকেট অর্থনীতিতে শীর্ষস্থান লাভ করা দুটি সম্পূর্ণ ভিন্ন বিষয়। তিনি এও জানান, আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তান যদি ভারতকে হারাতে পারে তাহলে পাকিস্তানের একজন বিনিয়োগকারী পিসিবিকে ফাঁকা চেক দিতে রাজি হয়েছেন, সেদিকে মনোযোগ দিতে হবে খেলোয়াড়দের। একইসঙ্গে ঘরোয়া ক্রিকেটারদের বেতন বৃদ্ধির কথাও টেনে আনেন তিনি। তিনি জানিয়েছেন আগামী দিনে পাকিস্তান ক্রিকেটের অর্থনীতিকে আরও বেশি শক্তিশালী করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ তিনি।

 

Related Articles

Back to top button