নতুন খবরভারতবর্ষ

করোনা রোগীদের সহায়তায় দরজা খুলে দিল মন্দির, তৈরি হল ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট কোভিড হাসপাতাল

বদোদরাঃ দেশে নতুন করে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে করোনা মহামারী। বিগত ২৪ ঘণ্টায় ২ লক্ষ ৩৪ হাজার মানুষ নতুন করে এই মারক ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। মহারাষ্ট্র, দিল্লী সমেত গোটা দেশেই ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। গুজরাতেও একই অবস্থা। রোজ ৭ হাজার করে মানুষ নতুন করে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। আর মৃতের সংখ্যাও দিন দিন বেড়ে চলেছে। আর এই করোনার পরিস্থিতির মধ্যে ধার্মিক স্থল গুলো মানুষের সাহাজ্যের জন্য এগিয়ে আসছে।

গুজরাটের বদোদরায় স্বামীনারায়ণ মন্দিরে কোভিড রোগীদের জন্য ৫০০ বেডের সুবিধা উপলব্ধ করানো হয়েছে। মঙ্গলবার- ১৩ এপ্রিল ২০২১ থেকে কোভিড -১৯ রোগীদের জন্য ৫০০টি বেড এবং অক্সিজেন সুবিধা সহ মন্দিরে অস্থায়ী কোভিড হাসপাতাল চালু করা হয়েছে।

পাইপযুক্ত অক্সিজেন লাইন এবং তরল অক্সিজেন ট্যাঙ্ক স্থাপন ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে এবং আগামী দিনে আইসিইউ এবং ভেন্টিলেটরগুলির সুবিধা স্থাপন করা হবে। এ পর্যন্ত মোট ৪৫ জন কোভিড -১৯ রোগীকে চিকিত্সার জন্য গাত্রী হাসপাতাল থেকে এই মন্দিরে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

জ্ঞানবত্সাল স্বামী বলেন, ‘বিএপিএস মন্দিরে কোভিড হাসপাতাল করার চিন্তা এবং সুযোগ-সুবিধার কথা বিবেচনা করা OSD IAS বিনোদ রাওয়ের ছিল। তিনি এই বিষয়ে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল এবং আমরা এই পরিষেবাটি সরবরাহ করার জন্য আনন্দিত। আমাদের গুরুহরি মহন্ত স্বামী মহারাজ, আমাদের প্রবীণ সাধু এবং পূজ্য ঈশ্বরচরণ স্বামী এটির জন্য তাদের অনুমতি দিয়েছেন।”

বিছানাপত্র সুবিধা, রান্নাঘর, ফ্যান, এয়ার কুলার এবং পার্কিং সহ অ চিকিত্সা অবকাঠামোগত BAPS সংস্থার অবদান ছিল এবং চিকিত্সা অবকাঠামোগত ব্যবস্থা করার কৃতিত্ব পুরোপুরি গুজরাট সরকার এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রকের। বেসিক চিকিত্সা অবকাঠামোগত ইতিমধ্যে উপলব্ধ থাকায় চার দিনের অল্প সময়ের মধ্যেই এই ব্যবস্থা করা হয়েছিল।”

Related Articles

Back to top button