নতুন খবরভারতবর্ষ

এখানে রাখা যাবে না রোহিঙ্গাদের, পাঠাতে হবে ফেরত! সুপ্রিম কোর্টে জানিয়ে দিল বিজেপির সরকার

নয়া দিল্লিঃ রোহিঙ্গাদের বিষয়ে বিজেপির নেতৃত্বাধীন কর্ণাটক সরকার নিজেদের পুরনো বয়ান থেকে পালটি মেরেছে। সরকার সুপ্রিম কোর্টে একটি সংশোধিত হলফনাম দায়ের করেছে। এর আগে সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছিল যে, ব্যাঙ্গালুরুতে থাকা রোহিঙ্গাদের নির্বাসিত করার কোনও পরিকল্পনা নেই তাঁদের।

কর্ণাটকের স্বরাষ্ট্র বিভাগের তরফ থেকে দায়ের করা সাম্প্রতিক হলফনামায় বলা হয়েছে যে, তাঁরা কর্ণাটকে ১২৬ রোহিঙ্গাদের চিহ্নিত করেছে। ওই ১২৬ রোহিঙ্গাদের কর্ণাটক পুলিশ বা সরকার কোন শরণার্থী শিবিরে রাখেনি।

এই বিষয়ে ২০১৭ সাল সুপ্রিম কোর্টে একটি পিটিশন দাখিল করা হয়েছিল। সেখানে দাবি করা হয়েছিল যে, অবৈধ ভাবে ভারতে বসবাস করা রোহিঙ্গাদের এক বছরের মধ্যে ভারত থেকে তাঁদের দেশে ফেরত পাঠাতে হবে। পিটিশনে বলা হয়েছিল যে, দেশে রোহিঙ্গাদের বসবাস নিরাপত্তার দিক থেকে গভীর চিন্তার বিষয়।

উল্লেখ্য, কেন্দ্র সরকার নাগরিক সংশোধন বিল পাশ করিয়ে ভারতে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে অত্যাচারিত হয়ে শরণ নেওয়া হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ও বাকি ধার্মিক সংখ্যালঘুদের বসবাস করার নাগরিকত্ব প্রদানের কথা বলেছিল। তবে সেই বিল পাশ হলেও, এখনও গোটা দেশে লাগু হয়নি।

অন্যদিকে, NRC-র মাধ্যমে ভারতে অবৈধ ভাবে বসবাসকারিদের দেশ থেকে তাড়ানোরও কাজ শুরু করতে চলেছে অসম সহ দেশের কয়েকটি রাজ্যে। আর সেই NRC-র মাধ্যমেই অবৈধ ভাবে দেশ বসবাস করা রোহিঙ্গাদেরও ফেরত পাঠানো হবে। তবে দেশের বিভিন্ন রাজনতিইক দল সরকারের এই কর্মকাণ্ডের বিরোধিতা করেছে।

Related Articles

Back to top button