নতুন খবরভারতবর্ষরাজনীতি

সংসদ বানচালের অভিযোগে বিরোধীদের বিরুদ্ধে, কড়া পদক্ষেপ নিতে পারেন রাজ্যসভার অধ্যক্ষ

নয়া দিল্লীঃ বর্ষাকালীন অধিবেশনের প্রথম দিন থেকেই বিরোধীরা এককাট্টা হয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে নামার পরিকল্পনা নেয়। আর বারবার বিরোধীদের হাঙ্গামায় মুলতুবি হয়েছে লোকসভা এবং রাজ্যসভার অধিবেশন। সূত্র থেকে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, বিরোধীদের এই আচরণে ক্ষুব্ধ স্বয়ং উপ-রাষ্ট্রপতি তথা রাজ্যসভার অধ্যক্ষ বেঙ্কাইয়া নাইডু। আর এবার তিনি বিরোধীদের বিরুদ্ধে এই নিয়ে কঠোর ব্যবস্থাও নিতে পারেন বলে জানা গিয়েছে।

মঙ্গলবার রাজ্যসভার অধ্যক্ষ বেঙ্কাইয়া নাইডুর সঙ্গে দেখা করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, রাজ্যসভার দলনেতা পীযূষ গোয়েল এবং অন্যান্যরা। সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, বেঙ্কাইয়া নাইডুর কাছে বিজেপির প্রতিনিধিরা বিরোধী দলের সাংসদদের নামে অভিযোগ করেছেন।

তাঁদের মতে, বিরোধীরা ইচ্ছাকৃত ভাবে সংসদের কাজে বাধা দিচ্ছেন। তাঁদের উদ্দেশ্যই হল সংসদ অচল করে দেওয়া। আর অমিত শাহদের এই অভিযোগের পরই সম্ভবত বিরোধী দলের সাংসদদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেন বেঙ্কাইয়া নাইডু।

উল্লেখ্য, বর্ষাকালীন অধিবেশন চলাকালীন ইতিমধ্যে শান্তনু সেনের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিয়ে তাঁকে বহিষ্কার করেছেন রাজ্যসভা অধ্যক্ষ। তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেনের বিরুদ্ধে পেগাসাস ইস্যু নিয়ে আলোচনা করার সময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর হাত থেকে কাগজ ছিনিয়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছিল। আর এরপরই তাঁকে গোটা বাদল অধিবেশন থেকে বরখাস্ত করা হয়।

এছাড়াও, সংসদে হাঙ্গামা আর অধিবেশন বানচাল করার অভিযোগে তৃণমূলের ছ’জন রাজ্য সভার সাংসদকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। তাঁরা হলেন, অর্পিতা ঘোষ, দোলা সেন, শান্তা ছেত্রী, আবিররঞ্জন বিশ্বাস ও নাদিমুল হক।

Related Articles

Back to top button