আন্তর্জাতিকনতুন খবর

কাশ্মীর ভারতের অভ্যন্তরীণ ইস্যু, এই বিষয়ে UN তে চর্চা চাই না রুশ: নিকোলে কুদাসেভ,রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত

“আমরা মনে করি না ের পরিস্থিতি জানার জন্য আমার সেখানে যাওয়ার কোনো দরকার আছে। আর জম্মু ও ব্যাপারে বলতে গেলে বলবো যে, এটি সরকারের অভ্যন্তরীণ বিষয়। এটি ের অধীনে আসে এবং সেই ভিত্তিতেই সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত।” শুক্রবার নিউদিল্লিতে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত নিকোলা কুদাসেভ এ কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন যে রাশিয়া চায় না কাশ্মীরকে নিয়ে আবার তে আলোচনা করা হোক। নিকোলে কুদাসেভ বলেছিলেন যে সিমলা চুক্তি এবং লাহোর ঘোষণাপত্র অনুযায়ী এটি ও পাকিস্তানের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় ইস্যু। তিনি আরও বলেন যে, চীন বাদে তে কাশ্মীর নিয়ে আলোচনা করার জন্য অন্যান্য দেশেরও মত নেই।

 

কাশ্মীরে যাওয়ার প্রশ্নে তিনি বলেছিলেন যে, কাশ্মীরের পরিস্থিতি জেনে নিতে আমার সেখানে যাওয়ার দরকার আছে বলে আমি মনে করি না। ভারত সরকার জম্মু ও কাশ্মীরের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয় এবং এটি ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। বিদেশী রাষ্ট্রদূতদের কাশ্মীরে সফর প্রসঙ্গে তিনি বলেছিলেন যে কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে যারা চিন্তিত, কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে যাদের সন্দেহ রয়েছে, তারা সেখানে গিয়ে নিজেরাই দেখতে পারেন। রাশিয়া কখনই কাশ্মীরকে নিয়ে সন্দেহ করেনি।

জানিয়ে দি যে বুধবার চীন জাতিসংঘের সুরক্ষা কাউন্সিলে কাশ্মীর ইস্যুতে আলোচনার দাবি করেছিল। তবে যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ব্রিটেন ও ফ্রান্স এ নিয়ে আলোচনা করতে অস্বীকৃতি জানায়। এই সমস্ত দেশই ভারত ও পাকিস্তানকে দ্বিপক্ষীয় আলোচনার মাধ্যমে এই বিষয়ে সমস্ত বিরোধ নিষ্পত্তি করতে বলেছিল। প্রসঙ্গত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ব্রিটেন, ফ্রান্স এবং চীন জাতিসংঘের সুরক্ষা কাউন্সিলের স্থায়ী সদস্য।

জানিয়ে দি, ভারত এখন UN তে ভারত স্থায়ী পদের জন্য লড়াই চালাচ্ছে। তবে এক্ষেত্রেও চীন ভারতের ব্যাঘাত করছে। , ফ্রান্সের মতো দেশগুলি ভারতকে স্থায়ী পদ দেওয়ার সমর্থনে দাঁড়িয়েছে। আর এখন কাশ্মীর মামলাতেও আন্তর্জাতিক মঞ্চে সমর্থন জুগিয়েছে।

Back to top button
Close