আন্তর্জাতিকনতুন খবরভারতবর্ষ

ফের বেইজ্জত পাকিস্তান, ভারতে আসা সৌদি সেনাপ্রধানের ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড দেখে রেগে লাল ইমরানরা

নয়া দিল্লিঃ  সৌদি আরবের সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল ফাহদ বিন আবদুল্লাহ মোহাম্মদ আল-মুতাইর তিন দিনের ঐতিহাসিক সফরে সোমবার ভারতে পৌঁছেছেন। সৌদি সেনাপ্রধানের এটাই প্রথম ভারত সফর। লেফটেন্যান্ট জেনারেল তার সফরের সময় ভারতের সেনাপ্রধান এম এম নারাভানের সাথে দেখা করেন। এই বৈঠকের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। তবে ছবির চেয়ে ছবির প্রেক্ষাপট নিয়েই বেশি আলোচনা হচ্ছে।

আসলে, দুজনের সাক্ষাৎকারের ছবির ব্যাকগ্রাউন্ডে পাকিস্তানের লেফটেন্যান্ট জেনারেল আমির আবদুল্লাহ খান নিয়াজিকে ভারতীয় সামরিক অফিসারদের সামনে আত্মসমর্পণ নথিতে সই করতে দেখা যাচ্ছে। ছবিটি ১৯৭১ সালের বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের, যখন ভারত পাকিস্তানি সেনাবাহিনীকে পরাজিত করেছিল। প্রেক্ষাপটের ছবি নিয়ে ভারতের পক্ষ থেকে প্রচুর মানুষ প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন। পাকিস্তানিরা এই ছবি দেখে যে চরম বিরক্ত হয়েছে, তা সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখাই যাচ্ছে।

দুই সেনাপ্রধানের বৈঠকের ছবি অতিরিক্ত ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ পাবলিক ইনফরমেশন (ADG PI- Indian Army) এর অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে টুইট করা হয়েছে। সেখানে লেখা হয়েছে, ‘সৌদি আরবের রয়্যাল সৌদি ল্যান্ডের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল ফাহদ বিন আবদুল্লাহ মোহাম্মদ আল-মুতাইর জেনারেল এম এম নারাভানের সাথে দেখা করেন এবং দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক প্রতিরক্ষা সহযোগিতা আরও বাড়ানোর উপায় নিয়ে আলোচনা করেন।”

পাকিস্তানের মিজাব গ্রুপের অপারেশনস ডিরেক্টর মোহাম্মদ ইব্রাহিস কাজী তার অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেল থেকে টুইট করে লিখেছেন, ‘সৌদি সেনাপ্রধানের প্রোটোকলের জন্য এই ছবির সাথে পোজ না দেওয়াই ভালো ছিল। পাকিস্তান ও সৌদি আরবের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টির লক্ষ্যে ভারতীয় সেনাবাহিনী এই কাজ করেছে। একটি মুসলিম দেশের সামরিক নেতাকে এ অবস্থায় দেখা খুবই বেদনাদায়ক।” অন্যদিকে পাকিস্তানি সাংবাদিক নাইলা ইনায়াত টুইট করে লিখেছেন, ‘এই সাক্ষাতের সময় পাকিস্তানও উপস্থিত রয়েছে।”

Related Articles

Back to top button