নতুন খবর

কাশ্মীর ইস্যুতে কাশ্মীরের সবথেকে ঘনিষ্ঠ সঙ্গী সৌদি আরবও এবার ভারতের পাশে!

কাশ্মীর (Kashmir) ইস্যু নিয়ে এবার পাকিস্তানের (Pakistan) সবথেকে ঘনিষ্ঠ দেশ সৌদি আরবও (Saudi Arabia) তাঁদের সঙ্গ ছাড়ল। পাকিস্তানের প্রধান সংবাদপত্র ‘ডন” অনুযায়ী, সৌদি এবার কাশ্মীর ইস্যুতে ইসলামিক সংগঠন (OIC) এর বিদেশ মন্ত্রী স্তরে বৈঠক ডাকবে না বলে জানিয়েছে। আপনাদের জানিয়ে রকাহি, ৯ই ফেব্রুয়ারি OIC এর বরিষ্ঠ আদিকারিকরা বৈঠক করবেন।  মুসলিম দেশের সবথেকে বড় সংগঠন OIC এর থেকে কাশ্মীর ইস্যুতে বৈঠক ডাকার নিজেদের দাবি না পূরণ করতে পারায় পাকিস্তান ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।

মালয়েশিয়া সফরে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান একটি থিঙ্ক ট্যাংকের সাথে কথা বলার সময় উনি এই বিষয়ে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেন। উনি বলেন, আমাদের পাশে কোন মুসলিমদের দাঁড়ায় নি, আর আমরা সম্পূর্ণ ভাবে বসে গেছি। OIC কাশ্মীর ইস্যুতে একটাও বৈঠক ডাকতে পারেনি।

পাকিস্তান সৌদি আরবের নেতৃত্বে চলা ৫৭ টি মুসলিম দেশের সংগঠন OIC কে দিয়ে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে বৈঠক ডাকার জন্য লাগাতার চাপ সৃষ্টি করে চলেছে। কিন্তু সৌদি আরব লাগাতার তাঁদের দাবি নাকোচ করে দিচ্ছে। ডিসেম্বর মাসে OIC এর স্বাধীন স্থায়ী মানবাধিকার কমিশন কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে একটি রিপোর্ট পেশ করেছিল। যদিও বিদেশ মন্ত্রী স্তরে এই বৈঠক নিয়ে কোন প্রগতি হয়নি।

পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি OIC এর বৈঠক নিয়ে কিছুদিন আগেই বলেন, কাশ্মীর ইস্যুতে মুসলিমদের একজোট হওয়া খুবই জরুরি। মালয়েশিয়া সফরেও ইমরান খান মুসলিম দেশ গুলোর চুপ থাকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। ইমরান খান বলেন, যদি বৈষম্য ধর্মের ভিত্তিতেই হচ্ছে তাহলে মুসলিমদেরও ধর্মের ভিত্তিতে একজোট হওয়া দরকার।

Back to top button
Close