Press "Enter" to skip to content

‘আল্লাহ ওকে তুলে নিয়েছে, জাহান্নামে পাঠাবে”- রোহিত সরদানার মৃত্যুর পর আনন্দ উল্লাসে মাতল কট্টরপন্থীরা

শেয়ার করুন -

আজ তাক চ্যানেলের বরিষ্ঠ সাংবাদিক রোহিত সরদানা প্রয়াত হয়েছেন। উনি এক সপ্তাহ ধরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন। উনার বয়স ৪২ বছর ছিল। জি নিউজের ‘তাল ঠোক কে’ এবং আজ তাক চ্যানেলে ‘দঙ্গল’ ডিবেট শো থেকে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। রাষ্ট্র্ববাদী মানুষজনের কাছে একজন প্রিয় সাংবাদিক হয়ে উঠেছিলেন রোহিত সরদানা।

হটাৎ উনার মৃত্যু দেশের একটা বড়ো ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। সংবাদ মাধ্যমের জগৎ থেকে শুরু করে রাজনৈতিক মহল এবং সাধারণ দেশবাসীর মধ্যে রোহিত সরদানার মৃত্যুর খবর শোকের ছায়া এনেছে। তবে রাষ্ট্রবাদী এই সাংবাদিকের মৃত্যুর খবরে মেতে উঠেছে কট্টরপন্থী, দেশদ্রোহী ও উন্মাদীরা।

রোহিত সারদানার মৃত্যুর পর টুইট করে নিজেকে মুসলিম এক্টিভিস্ট বলা সার্জিল উসমানী সরদানাকে উদেশ্য করে লিখেছেন, “মনরোগী, গণহত্যাকে সমর্থন করা ওই ব্যক্তিকে কখনো একজন সাংবাদিক হিসেবে মনে রাখা হবে না।”

সার্জিল উসমানীর এমন মন্তব্যের পর অনেকে আপত্তি প্রকাশ করেছেন এবং উনাকে ভেবে চিন্তে লিখতে বলেছেন। আলী মৌলা নামের এক টুইটার হ্যান্ডেল থেকে লেখা হয়েছে, ” বাহ! এটা খুব ভালো খবর যে রোহিত সরদানা মারা গেছে। নোংরা লোকেদের এই জগতে প্রয়োজন নেই।”

ইরফান বসির বাণী ফেসবুকে লিখেছেন, “ওই ব্যক্তি মুসলিমদের প্রতি ঘৃণা ছড়িয়েছিলেন। আগের বছর উনি তাবলীগি জামাতের বিরুদ্ধে বিষ উগরে ছিলেন। আল্লাহ পরিকল্পনা বানিয়ে উনাকে নরকের জন্য তুলে নিয়েছেন।”

শুধু অভদ্র কমেন্ট নয় বেশকিছু নিউজ পোর্টালে গিয়ে রোহিত সরদানা মৃত্যুর খবরে হাসির রিয়াক্ট দিয়েছে কট্টরপন্থীরা। বলিউডের সাথে জড়িত কিছু লোকজনকেও রোহিত সরদানার মৃত্যু নিয়ে অভদ্র ইঙ্গিত প্ৰকাশ করতে দেখা গেছে।