নতুন খবরভারতবর্ষ

শহীদ কাশ্মীরি পণ্ডিতের মেয়ের হুঙ্কার, ‘বদলা নিয়েই ছাড়ব, কাউকে ভয় করিনা”

নয়া দিল্লীঃ কাশ্মীরে জঙ্গিদের কোমর ভাঙছে। গতকালও উপত্যকায় পাঁচ জঙ্গিকে নিকেশ করেছে সেনা। চারদিনে ১৪ জন জঙ্গিকে খতম করে কাশ্মীরে চালকের আসনে ভারতীয় সেনা। কিন্তু সেনার এই সফলতার মধ্যে প্রশ্ন উঠেছে যে, কাশ্মীরি পণ্ডিতরা ন্যায় কবে পাবে? সোমবার রাজ্যের একমাত্র কাশ্মীরি পণ্ডিত পঞ্চায়েত প্রধানকে খুন করে জঙ্গিরা। ১৭ বছর আগে জম্মু কাশ্মীরে কাশ্মীরি পণ্ডিতদের নরসংহার হয়েছিল। আর এরপর এটাই কাশ্মীরি পণ্ডিতদের উপর এরকম হামলা প্রথম মামলা।

অজয় পণ্ডিতের (ajay pandita) হত্যার পর গোটা দেশেই আবারও কাশ্মীরি পণ্ডিত (kashmiri pandit) ইস্যু মাথাচাড়া দিচ্ছে। বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত আর অভিনেতা অনুপম খের কাশ্মীরি পণ্ডিতের হত্যা নিয়ে আবারও সরব হয়েছেন। কঙ্গনা রানাওয়াত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে কাশ্মীরে কাশ্মীরি পণ্ডিতদের সুরক্ষা আর পুনর্বাসনের দাবি জানিয়েছেন।

আরেকদিকে ঠিক এই সময় নিহত অজয় পণ্ডিতের মেয়ে শিন পণ্ডিতের বয়ান সামনে এসেছে। শিন-এর বয়ানে কাশ্মীরে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে স্পষ্ট ক্ষোভ বোঝা গেছে। এমনকি তিনি এও বলছেন যে, বাবার মৃত্যুর বদলা নেবেন তিনি। শিনা এও বলেছেন যে, আমার বাবা দেশের সেবা করেছে, আমিও করব। আমার বাবাও কাউকে ভয় পেত না, আমিও কাউকে ভয় পাইনা। আমি আবারও কাশ্মীরে যাব। বাবার স্বপ্ন পূরণ করব।

উনি দেশ এবং দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে এই নরকীয় ঘটনার পিছনে যাঁদের হাত রয়েছে আর যারা এই ঘটনার সাথে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ভাবে জড়িত তাদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। শিন জঙ্গিদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, ওঁরা জানেনা ওঁরা কাদের সাথে শত্রুতা নিয়েছে, এবার আমাদের করে দেখানোর পালা। ওঁদের আমরা দেখিয়ে দেব যে আমরা কি করতে পারি।

উনি বলেন আমাদের দেশের বীর সেনা এবং সরকারের উপর আমার পুরো ভরসা আছে, আর আমি জানি আমার বাবার মৃত্যুর প্রতিশোধ নেওয়া হবেই। শিন বলেন, আমার বাবার মৃত্যুর দুঃখ আছে ঠিকই, কিন্তু আমি গর্বিত যে আমার বাবাকে তিরঙ্গায় মুড়ে নিয়ে আসা হয়েছে। এই সন্মান সবাই পাওয়া যোগ্য নয়। আমার বাবা দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছেন। আর সেই জন্য আমি গর্বিত। আর আগামী দিনে দরকার থাকলে আমিও দেশের জন্য প্রাণ দিতে অথবা নিতে পিছপা হব না।

Related Articles

Back to top button