Press "Enter" to skip to content

মোদীকে হিটলার বলে কটাক্ষ করলেন পাকিস্তানের রেলমন্ত্রী শেখ রশিদ! বললেন ভারতের মুসলিমদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের কর্তব্য।

শেয়ার করুন -

পাকিস্তানের রেলমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ (Sheikh Rasheed Ahmad) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra modi) উপর আপত্তিকর ভাষা ব্যবহার করেছেন। রশিদ শনিবার বলেছিলেন যে মুসোলিনী-হিটলার মোদী যেভাবে ভারতীয় মুসলমানদের জন্য সমস্যা তৈরি করছে, তা উভয় দেশকে যুদ্ধের দিকে নিয়ে যেতে পারে। বিতর্কিত বক্তব্য দিয়ে রশিদ প্রায় খবরের শিরোনামে থাকেন। এর আগে তিনি করতারপুর করিডোরকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পরিবর্তে সেনা প্রকল্প হিসাবে বর্ণনা করেছিলেন।

ইমরান খানের মন্ত্রী আরও বলেছিলেন – কাশ্মীর ও ভারতে মুসলমানদের সাথে দাঁড়ানো আমাদের দায়িত্ব। মোদী সরকারের পদক্ষেপগুলি ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে মতপার্থক্য বাড়িয়ে তুলবে যা যুদ্ধের দিকে নিয়ে যেতে পারে। তিন দিন আগে (বুধবার) রশিদ বলেছিলেন যে যুদ্ধটি কেবল ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যেই হবে না, পুরো উপমহাদেশ এর সাথে জড়িত থাকবে। এই ইস্যুতে ইমরান খানও মন্তব্য করেছিলেন যা সম্পূর্ণ আলাদা।

ইমরান খান বলেছিলেন পরমাণু হাতিয়ার সম্পন্ন দেশগুলোর মধ্যে যুদ্ধ হলে তার অন্তিম পরিস্থিতি মোটেও ভালো হবে না। শনিবার ইমরানের মন্ত্রী একটি বিতর্কিত বক্তব্য রেখে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে ‘হিটলার-মুসোলিনি’র সাথে তুলনা করেছেন। তিনি বলেছিলেন যে ভারতীয় মুসলমানদের জন্য যে সমস্যা তৈরি হচ্ছে তা উভয় দেশকে যুদ্ধের দিকে নিয়ে যেতে পারে।

জানিয়ে দি, CAA আইন নিয়ে দেশজুড়ে কট্টরপন্থীরা হাঙ্গামা শুরু করেছে। কট্টরপন্থীরা বিভিন্ন রাজ্যের এলাকায় দাঙ্গা ফ্যাসাদ শুরু করেছে। ট্রেনের উপর পাথর ছোড়া, ট্রেন জ্বালিয়ে দেওয়া, স্টেশন জ্বালিয়ে দেওয়া, টোলট্যাক্সে আগুন লাগানোর মতো ঘটনা ঘটিয়েছে লুঙ্গি বাহিনী। রাজধানী দিল্লী ও উত্তর প্রদেশে অশান্তি ফেলানোর চেষ্টা হয়েছিল তবে সেখানের প্রশাসন কড়া হাতে পরিস্থিতির মোকাবিলা করেছে। অন্যদিকে পশ্চিমবঙ্গের পরিস্থিতি একেবারে হাতের বাইরে গিয়ে বহু কোটির সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে।