নতুন খবরভারতবর্ষ

শিব মন্দির অপবিত্র করেছিল ৩ কট্টরপন্থী! ২ জনকে গ্রেফতার করে স্থানীয়দের সাথে মিলে মন্দির সাফাইয়ের কাজ করলো পুলিশ।

উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) বাদাউনে (Budaun) একটি ধর্মীয় স্থান অপবিত্র করার ঘটনায় দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। বাডাউনের ফেইজাগঞ্জ বেহাতা এলাকায় এক সম্প্রদায়ের তিন কিশোর হিন্দু মন্দিরে প্রবেশ করে স্থানকে অপবিত্র করেছে।মন্দিরে প্রবেশ করে সেখানে নোংরা ফেলে দিয়েছিল। এলাকার লোকজন ঘটনা জানতে পারলে আক্রোশ ছড়িয়ে পড়ে। মানুষের ক্ষোভের কারণে দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হয়। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, এলাকার লোকজন দুই যুবককে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। অন্য এক যুবক পলায়ন করতে সক্ষম হয়।

ঘটনাকে কেন্দ্র করে এখনও এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, এলাকায় শ্মশান লাগোয়া এক জমির উপর পুরানো ধার্মিক স্থল রয়েছে। আশেপাশের লোকেরা এখানে পূজা করতে আসেন। রবিবার (২৪ নভেম্বর, 2019) বেলা সাড়ে ৪ টার দিকে আশীষ তিওয়ারি, রমাকান্ত এবং সন্ত্রাম মিশ্র খামারের দিকে যাচ্ছিলেন। এই সময়ে, যখন ধর্মীয় স্থানটিতে তাদের চোখ পড়ে, তারা দেখেন যে অন্য সম্প্রদায়ের তিন কিশোর ধার্মিক স্থলকে অপবিত্র করছে।

চিৎকার চেঁচামেচি হতেই আশেপাশের লোকজন জড়ো হয়ে দুই কট্টরপন্থী যুবককে ধরে ফেলে। অন্যদিকে ১ যুবক ভিড় এর চোখে ফাঁকি দিয়ে পলায়ন করে। স্থানীয় লোকজন ওই দুই যুবককে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পুলিশ যুবকদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে যুবকদের পরিজনরা পৌঁছে যায়। সেখানে স্থানীয় লোকজন যুবকদের পরিবারে উপর ক্ষোভ প্রকাশ করে। ঘটনার উত্তেজনা দেখে বড়ো সংখ্যায় পুলিশ নিযুক্ত করা হয়। সকাল বেলা স্থানীয় লোকজনের সাথে মিলে পুলিশ এলকা পরিষ্কার পরিছন্ন করে।

মন্দিরকে পরিস্কার করে সেখনের শুদ্ধিকরণের কাজ শুরু করা হয়। মন্দিরে যজ্ঞ করে পূঁজা অর্চনা করা হয়। পুলিশ দুই যুবককে চালান করে কোর্টে পেশ করে। অন্যদিকে আরো একজন যুবকের তল্লাশি চলছে। পরিস্থিতি যাতে নিয়ন্ত্রণের বাইরে না যায় তার জন্য এসডিও এবং সিও কর্মকর্তারা পুরো বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছেন। ধার্মিক স্থানকে সাফাই করার জন্য পুলিশ সেখানে পৌঁছেছিল, যাতে এলাকার মানুষের কাছে ভালো বার্তা যায়।

Related Articles

Back to top button