নতুন খবররাজনীতি

মধ্যপ্রদেশ থেকে ফেরানো হচ্ছে না পরিযায়ী শ্রমিকদের! মমতাকে চিঠি লিখে অভিযোগ শিবরাজের

ভোপালঃ মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান (Shivraj Singh Chouhan) পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে (Mamata Banerjee) একটি চিঠি লিখলেন। ওই চিঠিতে পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) সেসব শ্রমিকদের (Migrant Workers) কথা উল্লেখ করেন তিনি, যারা এই লকডাউনের কারণে মধ্যপ্রদেশের বিভিন্ন জায়গায় আটকে আছে।

শিবরাজ সিং নিজের চিঠিতে লেখেন, শ্রমিকেরা নিজের বাড়ি ফিরে যেতে চাইছে, কিন্তু ইন্দোর থেকে বাংলার বিভিন্ন শরের দুরত্ব অনেক হওয়ার কারণে যেতে পারছে না। যারা প্রাইভেট গাড়ি ভাড়া করে যেতে চাইছে, তাদের কাছে সেটা সাধ্যের বাইরে হয়ে যাচ্ছে। কারণ এত দূরত্বের সফরে অনেক বেশি খরচ হয়ে যাচ্ছে।

এই জন্য শিবরাজ সিং মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে অনুরোধ করে বলেছেন যে, উনি যেন রেল মন্ত্রালয়ের সাথে এই বিষয়ে কথা বলেন। মমতা ব্যানার্জী কেন্দ্র সরকারের কাছে ইন্দোর থেকে কলকাতায় যাওয়ার জন্য একটি স্পেশ্যাল ট্রেনের আবেদন করুক এটাই চান শিবরাজ সিং চৌহান।

করোনার সঙ্কটের মধ্যে লডাউনের পর থেকেই কেন্দ্র সরকার আর মমতা ব্যানার্জীর সরকারের সাথে কোন না কোন ইস্যু নিয়ে অসামঞ্জস্য দেখা গিয়েছে। শিবরাজ সিং চৌহানের চিঠির পর এবার মমতা ব্যানার্জীর সামনে দুটি বিকল্পই আছে। প্রথম, উনি রেল মন্ত্রালয়ে অনুরোধ করে ইন্দোরের আটকে পড়া বাঙালি শ্রমিকদের জন্য একটি বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করুক। আর দ্বিতীয়ৎ হল, উনি শিবরাজ সিং এর পাঠানো চিঠিকে নজরান্দাজ করুক। কিন্তু উনি যদি দ্বিতীয় বিকল্প বেছে নেন, তাহলে রাজ্যের শ্রমিকদের ফিরিয়ে না নেওয়ার জন্য ওনাকে আবার বিরোধীদের আক্রমণ সহ্য করতে হবে। এবার প্রশ্ন এটাই যে, এখন মমতা ব্যানার্জী তাহলে কি করবে?

এর আগে মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে হওয়া প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভিডিও কনফারেন্সে শিবরাজ সিং চৌহান ইঙ্গিতে মমতা ব্যানার্জীকে জবাব দিয়ে দিয়েছেন। ওই বৈঠকে মমতা ব্যানার্জী কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে এই মাহামারীর মধ্যেও রাজনীতি করার অভিযোগ তুলেছিলেন। এর জবাবে শিবরাজ সিং চৌহান কারও নাম না নিয়ে বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক হিসেবে কাজ করছেন। উনি যা কিছু করছেন, সেটা দেশ আর রাজ্যের স্বার্থে করছেন আর সবাইকে নিয়ে চিন্তাও করছেন উনি।

Related Articles

Back to top button