নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

অযোধ্যায় মন্দির না, কেয়ামত পর্যন্ত মসজিদই থাকবে! বললেন মমতার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী

কলকাতাঃ অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পুজো করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) ভুল কাজ করেছেন বললেন, রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী (Siddiqullah Chowdhury)। একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে RSS এর প্রতিনিধি হিসেবেও কটাক্ষ করেছেন। উনি বলেন, আজ অযোধ্যায় মসজিদ ভেঙে মন্দির হয়েছে। তবে গোটা বিশ্ব জানে ওখানে মসজিদ ছিল। আর কেয়ামত পর্যন্ত মসজিদই থাকবে। উনি এও বলেন যে, ভাগ্যের চাকা কোনদিকে ঘুরবে কেও জানেনা। এখানেও চাকা উল্টো ঘুরতে পারে।

গতকাল উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় শ্রী রাম চন্দ্রের জন্মভূমিতে রাম মন্দিরের ভূমি পুজো এবং শিলন্যাস করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ৫০০ বছরের আন্দোলন আর লড়াইয়ের পর হিন্দুরা রামের জন্মভূমিতে মন্দির করার অনুমতি পেয়েছে। আর এই দিনের সাক্ষী হয়ে রইল ভারত সমেত গোটা বিশ্ব। আরেকদিকে, এই দিনটিকে কালা দিবস হিসেবে আখ্যা দিয়েছে জমিয়তে উলেমায়ে হিন্দ। সংগঠনের নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের কাছে এই দিনটি ধৈর্য্যের দিন। মনোবল বাড়িয়ে নেওয়ার দিন।”

সিদ্দিকুল্লা এও বলেন, বাবরি মসজিদ ভেঙে রাম মন্দিরের ভূমি পুজো করে গোটা দেশের সামনে একটি কঠিন দিন এনে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। উনি ভুল করেছেন।

আরেকদিকে, অযোধ্যায় (Ayodhya) প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) দ্বারা ভূমি পুজো আর শিলন্যাস করার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই অল ইন্ডিয়া ইমাম অ্যাসোসিয়েসান (all india imam association) এর সভাপতি বিতর্কিত মন্তব্য করলেন। অ্যাসোসিয়েসান এর সভাপতি সাজিদ রাশিদি (Sajid Rashidi) বলেন, রাম মন্দির ভেঙে মসজিদ বানানো হবে। রাশিদি এও বলেন যে, ওই জায়গায় কোন মন্দির ছিল না, সেখানে বাবরি মসজিদ ছিল আছে আর থাকবে।

নিজের বয়ানে রাশিদি বলেন, ইসলাম বলে মসজিদ আজীবন মসজিদই থাকে। সেখানে অন্য কিছু গড়া যায় না আর তা সেটিকে ভাঙা যায়। আমাদের বিশ্বাস ছিল আর আজীবন মনে থাকবে যে, ওখানে মসজিদ ছিল। মন্দির ভেঙে মসজিদ বানানো হয়েছিল না, কিন্তু এখন মসজিদ ভেঙে মন্দির বানানো হয়েছে। আর এটা আমরা আজীবন মনে রাখব। এবং আগামী দিনে সেখানে মন্দির ভেঙে মসজিদ বানাব।

Back to top button
Close