Press "Enter" to skip to content

“বেতন নিত, মারা গেছে- এদের শহীদ বলা যাবে না”- বলিদানি জওয়ানদের অপমান করে গ্রেফতার বুদ্ধিজীবী

শেয়ার করুন -

ছত্রিশগড়ে নকশালীদের সাথে সংঘর্ষে দেশের ২২ জন জওয়ান শহীদ হয়েছেন। যা পুরো দেশজুড়ে শোকের ছায়া ফেলেছে। এই ঘটনায় পুরো দেশ ব্যাথিত হলেও বামপন্থী ও বুদ্ধিজীবীদের উপর কোনো প্রভাব দেখা যাচ্ছে না। উপরন্তু বেশকিছু বুদ্ধিজীবী এমন এমন পতিক্রিয়া দিচ্ছে তাতে দেশের প্রতি তাদের ঘৃণা স্পষ্ট প্রকাশ পাচ্ছে।

২২ জওয়ান শহীদ হওয়ার পর আসামের এক বুদ্ধিজীবীকে তার ফেসবুক পোস্টের জন্য গ্রেফতার করা হয়েছে। ৪৮ বছর বর্ষীয় আসামের লেখিকা শিখা শর্মাকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। গুয়াহাটি পুলিশ শিখা শর্মাকে দেশদ্রোহিতার মামলায় গ্রেফতার করেছে। উনাকে কাল আদালতে পেশ করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গুয়াহাটি পুলিশ কমিশনার মুন্না প্রসাদ গুপ্তা বলেছেন, শিখা শর্মার উপর IPC ধারা 124-এ সহ বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। শিখা শর্মা ফেসবুকে লিখেছিলেন, “বেতনভুক্ত কর্মচারী যারা ডিউটির সময় মারা গেছে তাদের শহীদ বলা যাবে না। তাহলে এই যুক্তিতে বিদ্যুৎ বিভাগের কোনো কর্মচারীর যদি কারেন্ট লেগে মৃত্যু হয় তাহলে সেও শহীদ। মিডিয়া মানুষের আবেগকে এসবের সাথে যুক্ত করা বন্ধ করুক।”

অসমের এই লেখিকার পোস্টের উপর সোশ্যাল মিডিয়ায় লোকজন ব্যাপক ক্ষোভ প্ৰকাশ করে। সোমবার গুয়াহাটি হাইকোর্টের দুজন উকিল উনার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করান। গুয়াহাটি হাইকোর্টের এই দুজন উকিল বলেন, এই ধরণের মন্তব্য দেশের সৈনিকদের বলিদানকে কম দেখানোর চেষ্টা করে এবং এটা দেশের ভাবনার উপর ডাইরেক্ট আক্রমন।