নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

বহিরাগত ওমপ্রকাশ মিশ্রকে প্রার্থী করার পর শিলিগুড়িতে তৃণমূল নেতাদের মধ্যে দল ছাড়ার হিড়িক

শিলিগুড়িঃ তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই রাজ্য জুড়ে তৃণমূল নেতা-কর্মীদের অসন্তোষ চোখে পড়েছিল। বাদ যায়নি শিলিগুড়িও। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী ওমপ্রকাশ মিশ্রকে নিয়ে শিলিগুড়িতে তৃণমূল নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ আরও বাড়ল। এর আগে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের শিলিগুড়ি সফরের দিনে দল ছেড়ে নির্দল প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা করেছিলেন দাপুটে নেতা নান্টু পাল। আর তৃণমূলের অনেক নেতা-কর্মীর মধ্যে ওম প্রকাশ মিশ্রর কারণে দল ছাড়ার হিড়িক দেখা যাচ্ছে।

শিলিগুড়ির তৃণমূল নেতা-কর্মীদের একটাই দাবি, সেই দাবি হল তাঁরা কোনওমতেই বহিরাগত প্রার্থীকে মেনে নেবে না। আর এই কারণে তৃণমূলে পদত্যাগের হিড়িক দেখা দিয়েছে। আরেকদিকে, পদত্যাগী তৃণমূল নেতা-কর্মীদের পাল্টা আক্রমণ করেছেন প্রার্থী ওমপ্রকাশ মিশ্র। তিনি বলেন, দলের সমস্ত সংগঠনই আমার হয়ে কাজ করছে। কিন্তু কিছু মানুষ বলছে কাজ করব না। আসলে ওঁরা আমাকে ক্যারি করতে পারবে না বলেই এরকম বলছে। আমি বলে দিই, আমাকে ক্যারি করতে যোগ্যতা লাগে। দরকার পড়লে আমার বায়োডেটাটা দেখে নিক ওঁরা।”

ওমপ্রকাশ মিশ্রকে প্রার্থী করার পর থেকেই শিলিগুড়ি তৃণমূলের মধ্যে তুমুল অসন্তোষ দেখা গিয়েছে। একের পর এক নেতা দল ছেড়েছেন। শুরু করেছিলেন শিলিগুড়ির দাপুটে তৃণমূল নেতা নান্টু পাল। এরপর দার্জিলিং জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের দুজন সাধারণ সম্পাদক দীপক শীল এবং জ্যোৎস্না আগরওয়ালও ওমপ্রকাশ মিশ্রকে প্রার্থী হিসেবে মেনে নেবেন না বলে দল ছেড়েছেন।

এর আগে শিলিগুড়িতে বিখ্যাত ফুটবলার বাইচুং ভুটিয়াকে প্রার্থী করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী। সেবার শিলিগুড়িতে সিপিএম-এর প্রার্থী অশোক ভট্টাচার্যের কাছে হেরে গিয়েছিল তৃণমূল। সেই প্রসঙ্গ টেনে প্রাক্তন তৃণমূল নেতা নান্টু পাল বলেন, বাইচুংও বহিরাগত ছিল। আমরা অনেক চেষ্টা করেও তাঁকে জয়ী করতে পেরেছিলাম না। তাই এবার আর বহিরাগত প্রার্থীর হয়ে প্রচার করা সম্ভব না। ওমপ্রকাশকে সামনে রেখে আমরা লড়তে পারব না।

Related Articles

Back to top button