নতুন খবর

হিন্দুরা হিংস্র! আর সেটার প্রমাণ রামায়ণ মহাভারতেই পাওয়া যায়ঃ সীতারাম ইয়েচুরি

সিপিএম মহাসচিব সীতারাম ইয়েচুরি ( Sitaram Yechury ) এর বক্তব্য অনুযায়ী রামায়ণ আর মহাভারতের মত ধর্মগ্রন্থ থেকেই প্রমাণ পাওয়া যায় যে, হিন্দুরাও হিংসক হতে পারে। বৃহস্পতিবার মধ্যপ্রদেশের ভোপালে এক সভায় তিনি বলেন, ‘রামায়ণ আর মহাভারত এর মত ধর্মগ্রন্থে হিংসার ঘটনার কোটি কোটি উদাহরণ আছে।” উনি বলেন, ‘ আরএসএস প্রচারকেরা একদিকে এই গ্রন্থ গুলোর উদাহরণ দেয়, আরেকদিকে তাঁরাই বলে, হিন্দুরা হিংস্র হতে পারেনা। এই কথার মধ্যে কি লজিক আছে যে, এক বিশেষ ধর্মের মানুষেরাই শুধু হিংসা ছড়ায়, আর হিন্দুরা শান্ত!”

সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, আরএসএস তাঁদের প্রাইভেট আর্মি বানাচ্ছে। কিন্তু মহাজোট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ক্ষমতাচ্যুত করবে।সীতারাম ইয়েচুরি ভোপালের এই সভায় ভোপাল লোকসভা আসনে কংগ্রেসের প্রার্থী দিগ্বিজয় সিং ও উপস্থিত ছিলেন। উনি বলেন, এটা সাধারণ লোকসভা নির্বাচন না, এটা সংবিধান বাঁচানোর লড়াই।

দিগ্বিজয় সিং অভিযোগ করে বলেন, ‘বিজেপি সংবিধানকে খেলনা বানিয়ে রেখেছে। বিজেপি সংবিধানে একদমই বিশ্বাস করেনা। এই লড়াই মানুষের সাথে না, এই লড়াই বিজেপির বিচারধারার বিরুদ্ধে লড়াই।” আপনাদের জানিয়ে রাখি, ভোপাল লোকসভা আসনের কংগ্রেস প্রার্থী দিগ্বিজয় সিং হিন্দু বিরোধী নেতা বলেই পরিচিত। উনি এর আগে সমস্ত হিন্দুদের সন্ত্রাসবাদী বলে আখ্যা দিয়েছিলেন।

আরেকদিকে সিপিএম এর মহাসচিব সীতারাম ইয়েচুরি ধর্মনিরপেক্ষতার আড়ালে বরাবরই হিন্দুদের দোষ দিয়ে এসেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এমনকি উনি সংখ্যালঘুদের পাশে দাঁড়িয়ে মুসলিম ভোট ব্যাংকে থাবা বসানোর জন্য ভারত ছেড়ে পাক প্রীতিও দেখিয়েছে বলেও অভিযোগ। শুধু এনারাই না, সমস্ত স্বঘোষিত ধর্মনিরপেক্ষ নেতারাই ধর্মনিরপেক্ষতার নামে বরাবরই হিন্দু আর ভারতবর্ষকে আক্রমণ করে এসেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

Related Articles

Back to top button