অপরাধনতুন খবর

কেরলে গর্ভবতী মহিষকে কেটে তার ভ্রূণের মাংস ভাগাভাগি করল অপরাধীরা! গ্রেফতার আবু, সুহেল সহ ৬ জন

কেরলে এক গর্ভবতী হাতনির মৃত্যুর পর এক বন্য মহিষকে হত্যা করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। বেশকিছু লোক মিলে নৃশংসভাবে গর্ভবতী মহিষকে হত্যা করা হয়েছে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, রাজ্য বনকর্মকর্তারা এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মল্লাপুরম জেলার ৬ জন স্থানীয় ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করেছে।

পুল্লারা আবু,মহম্মদ বুস্তান (৩০), মুহাম্মদ আনসিফ (২৩), আশিক (২৭) এবং সুহেল (২৮) সহ অপর অভিযুক্ত বাবুকে রবিবার গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, অপরাধীরা মহিষটির সাথে রাক্ষসের মতো আচরণ করেছে। মহিষটিকে কেটে তার মাংস ভাগ করার সাথে সাথে মহিষের পেটে থাকা পূর্ন বিকশিত ভ্রূনটিকে কেটে নিজেদের মধ্যে ভাগ করেছিল।

এই ঘটনায় অভিযুক্ত আবু নিজের বন্ধুক দ্বারা বন্য মহিষটিকে গুলি করেছিল। মাংস ভাগের পর অভিযুক্তরা মহিষের মাথা সহ বাকি কিছু অংশ নানা জায়গায় ছুঁড়ে ফেলে দেয়। ঘটনা সামনে আসার পর আবুর বাড়িতে ২৫ কিলো মাংস পাওয়া যায়।

প্রশাসনের তরফে বলা হয়েছে, খুব শীঘ্রই অভিযুক্তদের আদালতে নিয়ে যাওয়া হবে। প্রসঙ্গত কিছু মাস আগেই এক গর্ভবতী হাতনিকে বিস্ফোরক যুক্ত খাবার খাইয়ে দেওয়া হয়েছিল। ফলে হাতনি ও পেটের মধ্যে থাকা তার বাচ্চার মৃত্যু হয়েছিল। ঘটনাকে কেন্দ্র করে অনেকে এমন মানসিকতা সম্পন্ন লোকজনের উপর ধিক্কার জানিয়েছিল এবং ন্যায় বিচারের দাবি করেছিল।

Back to top button
Close