নতুন খবরভারতবর্ষরাজনীতি

বিহার নির্বাচনে গো- হারা হারলেন শত্রুঘন সিনহার ছেলে! কংগ্রেসে যোগদানের পর হারার রেকর্ড গড়ল সিনহা পরিবার

শত্রুঘন সিনহা বিজেপির নেতা ছিলেন। অটল বিহারীর আমলে তিনি সাংসদ ছিলেন। নরেন্দ্র মোদী দেশের প্রধানমন্ত্রী পদে বসার পর ২০১৪ সালেও শত্রুঘন সিনহা সাংসদ হয়েছিলেন। যেহেতু বিজেপি শত্রুঘন সিনহাকে মন্ত্রী করেনি তাই উনি ধীরে ধীরে নিজের দলের প্রতি আক্রোশ প্রকাশ করতে শুরু করে।

২০১৯ সালে শত্রুঘন সিনহা বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগদান করে। ইনি বিজেপির টিকিটে বিহারের পাটনা আসনে লোকসভার নির্বাচনে অংশ নিতেন এবং প্রত্যেকবার জিতে আসতেন। তবে শত্রুঘন সিনহা নিজেকে বড়ো নেতা মনে করতেন, সেই হিসেবে তিনি মন্ত্রী পদের দাবি করতেন।

এখন শত্রুঘন সিনহা কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনে দাঁড়ান। ২০১৯ এর নির্বাচনে পাটনা থেকে কংগ্রেসের টিকিটে দাঁড়িয়ে হারের মুখ দেখেছিলেন শত্রুঘন সিনহা। বিজেপির রবিশঙ্কর প্রসাদের সামনে গো- হারা হেরেছিলেন কংগ্রেসের শত্রুঘন সিনহা। একই সাথে নিজের স্ত্রীকেও নির্বাচনে দাঁড় করিয়েছিলেন। তবে উনাকেও হারের মুখ দেখতে হয়।

এখন বিহার নির্বাচনে নিজের ছেলে লব সিনহাকে বাকিপুর থেকে কংগ্রেসের টিকিটে দাঁড় করিয়েছিলেন। তবে সেখানে বিজেপির নীতিন নবীন ৩০ হাজার ভোটে লব সিনহাকে হারিয়ে দেন। প্রথমে শত্রুঘন সিনহা নিজে হারেন, তারপর উনার স্ত্রী হারেন এবং এখন ছেলেও হারের মুখ দেখেছে। বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে আসার পর থেকে শত্রুঘন সিনহা জনগনের ভরসা হারিয়েছেন তা এখন নিশ্চিতভাবে প্রমানিত হয়েছে।

Related Articles

Back to top button