Press "Enter" to skip to content

ISRO এর ব্যার্থতা ভারতের নাম খারাপ করেছে! লজ্জাজনক মন্তব্য তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়ের।

শেয়ার করুন -

বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য তৃণমূল কংগ্রেস পার্টি প্রায় খবরের শিরোনামে থাকে তৃণমূলের নেতা মন্ত্রীরা। এখন আরো একবার অযৌক্তিক মন্তব্য করে সমালোচনার শিকার হয়েছেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। তৃণমূলের সাংসদ সৌগত রায় বলেছেন, চাঁদে বিক্রমের (ল্যান্ডার) ক্র্যাশ অবতরণ বিশ্বব্যাপী ভারতের নাম খারাপ করেছে। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন বলেছেন যে পুরো বিশ্ব ISRO এর চন্দ্রায়ান-২ মিশনের প্রশংসা করেছে। ISRO কে অনুদানের বিষয়ে লোকসভায় আলোচনা হচ্ছিল।

মহাকাশ বিভাগকে অতিরিক্ত তহবিল দেওয়ার বিষয়ে তৃণমূল সাংসদ আপত্তি জানান। সৌগত রায় বলেন, যাঁরা চন্দ্রায়ণ -২ মিশনের ব্যর্থতার জন্য দায়ী তাদের আর কোনও অর্থ সরবরাহ করা উচিত নয়। সীতারমন বলেন, আপনাকে বুঝতে হবে একটা প্রজেক্টের প্রয়োগের জন্য কতো পরিশ্রম প্রয়োজন। নির্মলা সীতারমন বলেন,  আপনি এটাকে ব্যার্থতা বলতে পারেন না। ISRO এর কাজ পুরো বিশ্বজুড়ে খ্যাতি কমিয়ে নিচ্ছে। কিন্তু আপনি একজন সাংসদ হিসেবে তহবিল নিয়ে প্রশ্নঃ তুলছেন যা কোনোভাবেই ঠিক নয়।

জানিয়ে দি ISRO এর অর্বিটার এখনও চাঁদের চারিদিক চক্কর লাগাচ্ছে যা বেশকিছু বছর ধরে ভারতকে তথ্য প্রদান করতে থাকবে। তবে চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে লান্ডার নামার সময় তা ব্যার্থ হয়। ISRO এর আগে চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে নামার চেষ্টা কেও করেনি। তাই বিশ্বের সকল দেশ ISRO এর প্রচেষ্টাকে প্রশংসা করেছে। কিন্তু তৃণমূল সাংসদ দাবি করেছেন ISRO এর ব্যার্থতা ভারতের নাম খারাপ করেছে।

প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, NASA বা বাকি  আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলি থেকে ISRO এর সফলতার রেট অনেক বেশি। অন্যান্য সংস্থাগুলি যেখানে ১০ বারের প্রচেষ্টায় সফল হয়, ISRO সেখানে মাত্র ২ বারের চেষ্টায় সফল হতে পারে। ভারতের সাধারণ জনগণও ISRO এর এই সাফল্যকে উৎসাহ জোগাতে পিছিয়ে থাকে না।