নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

ইসলামেও এমন রীতি নেই, উনি বেলেল্লাপনা করছেন! শোভনকে তুলোধোনা ছেলে ঋষির

কলকাতাঃ সেই পুজোর আগে শুরু হয়েছিল, কখনও বাড়ির ব্যালকনিতে রবীন্দ্র সঙ্গীতে নাচ। আবার কখনও শাম্মি কাপুরের হিন্দি সিনেমার গানে নাচ। আর শেষমেশ ঘোড়ার গাড়ি করে ভিক্টোরিয়ায় গিয়ে উত্তম কুমারের কালজয়ী গান। সবেতেই সবার নজর কেড়েছিল শোভন-বৈশাখী জুটি। আর এবার কোনও লুকোচুরি না করেই দশমীর দিন মাকে বিদায় দেওয়ার মুহূর্তে বান্ধবী বৈশাখীর (Baisakhi Banerjee) সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে প্রথা অনুযায়ী বিয়েও সেরে ফেলেন শোভন চট্টোপাধ্যায় (Sovan Chattopadhyay)।

সেই সিঁদুর দানের মুহূর্তের ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। চারিদিকে ফের শুরু হয় শোভন-বৈশাখীকে নিয়ে চর্চা। বৈশাখী বলেন, ‘শোভন আমার সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দিল।” এই ঘটনা সামনে আসতেই শোভনের প্রাক্তন শ্বশুর দুলাদ দাস ক্ষোভ উগরে দেন। আর এবার বাবার বিরুদ্ধে মুখ খুলে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন শোভনপুত্র ঋষি চট্টোপাধ্যায়।

ঋষি বলেন, ‘দশমীর দিনে সিঁদুর খেলা হবে, সেটা স্বাভাবিক। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে, একজন বিবাহিত মানুষ অন্য একজন বিবাহিত মহিলাকে কীভাবে সিঁদুর পরান? দুজনের কারওই বিবাহ বিচ্ছেদ হয়নি, তাহলে এটা কীভাবে করল তাঁরা?”

ঋষি বলেন, শোভন চট্টোপাধ্যায় এই কাজ করে সরাসরি ধর্মের অবমাননা করেছেন। তিনি দুর্গা পুজোয় নিজের স্ত্রীকে অপমান করে অন্যের স্ত্রীর সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়েছেন। ইসলাম ধর্মেও এই রীতি নেই। সেখানেও দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাইলে প্রথম জনের সঙ্গে বিচ্ছেদ করতে হয়। কিন্তু উনিতো এখানে সরাসরি বেলেল্লাপনা করছেন।”

বলে রাখি, রত্না চট্টোপাধ্যায় আর শোভন চট্টোপাধ্যায়ের এখনও বিবাহ বিচ্ছেদ হয়নি। অন্যদিকে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় ও মনোজিৎ-র ও এখনও বিবাহ বিচ্ছেদ হয়নি। সেক্ষেত্রে শোভন-বৈশাখীর এই বিয়ে আইন অমান্য বলেই গণ্য হতে পারে। এখন দেখার বিষয় যে, শোভন-বৈশাখীর স্ত্রী ও স্বামী এই বিষয়ে কোনও পদক্ষেপ নেন কী না।

Related Articles

Back to top button