আন্তর্জাতিকনতুন খবর

করোনায় মৃত মুসলিমদের দেহ পুড়িয়ে দিচ্ছে শ্রীলঙ্কা সরকার, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মধ্যে বাড়ছে ক্ষোভ

নয়া দিল্লীঃ ধর্মীয় গোঁড়ামিকে প্রশ্রয় না দিয়ে করোনার (Coronavirus) সংক্রমণ ঠেকাতে কড়া পদক্ষেপ শ্রীলঙ্কার (Sri Lanka) সরকারের। বৈশ্বিক মহামারী করোনায় মৃত মুসলিমদের দেহ পুড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কার সরকার। আর এরপরেই দেশে ধার্মিক সংখ্যালঘু মুসলিমদের মধ্যে বাড়ছে ক্ষোভ।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, পরিবারের প্রবল আপত্তি থাকা স্বত্বেও ১৯ জন করোনায় মৃত মুসলিমদের দেহ পোড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কার প্রশাসন। প্রশাসনের এই পদক্ষেপে নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে শ্রীলঙ্কায়। ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দেওয়ার অভিযোগ তুলে করোনায় আক্রান্ত মৃত মুসলিমদের দেহ নিতে অস্বীকার করেছে পরিবার। যদিও সরকার এরপরেও তাদের সিদ্ধান্ত বদলায় নি।

শ্রীলঙ্কায় এখনো পর্যন্ত মোট ৩০ হাজার মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। সরকার নানান চেষ্টা করার পরেও বেড়েই চলেছে সংক্রমণ। মোট ১৪২ জন এখনো পর্যন্ত করোনায় মৃত হয়েছে ওই দেশে। সরকার এই সংক্রমণ ঠেকাতে একের পর এক কড়া পদক্ষেপ নিয়ে চলেছে। আর সেই সুত্রেই করোনায় মৃত মুসলিমদের দেহ পুড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

যদিও সরকারের এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ মুসলিমরা। আর সরকারের এই সিদ্ধান্তের কারণেই করোনায় মৃত মুসলিমদের দেহ নিতে অস্বীকার করেছে পরিবার। গত বুধবার পাঁচজন করোনায় মৃত মুসলিমের দেহ সৎকার করা হয় শ্রীলঙ্কায়। আর বাকি মৃত মুসলিমদের দেহ খুব শীঘ্রই পুড়িয়ে ফেলা হবে বলে জানানো হয়েছে প্রশাসনের তরফ থেকে। শ্রীলঙ্কা সরকারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে দেশের সুপ্রিম কোর্টে ১২ টি মামলা করেছে দেশের মুসলিমরা।

Related Articles

Back to top button