নতুন খবরভারতবর্ষ

রোজ ২০ হাজার কোটি টাকা বাঁচবে, TATA-র হাতে Air India তুলে ক্ষতি হয়নি বলছে সরকার

নয়া দিল্লিঃ ঋণের বোঝায় ডুবে থাকা সরকারি বিমান কোম্পানি এয়ার ইন্ডিয়াকে (Air India) বহু প্রয়াসের পর বিক্রি করা সম্ভব হয়েছে। তবে, এই বিমান কোম্পানির মাথায় করদাতাদের ১ লক্ষ ৫৭ হাজার ৩৩৯ কোটি টাকা খরচ হয়েছে। ডিসেম্বর ২০২১-এ এয়ার ইন্ডিয়াকে টাটার (Tata) হাতে তুলে দেওয়ার আগে পর্যন্ত সরকারকে অনেক টাকা খরচ করতে হবে। এয়ার ইন্ডিয়ার বেসরকারিকরণে করদাতাদের ২০ কোটি টাকা বেঁচে যাবে।

তিনজন ভিন্ন মন্ত্রীর একাধিক নিয়ম পরিবর্তন এবং দুটি মিশন থামার পর, অবশেষে, দুই দশক পরে করদাতাদের আর একটি এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্লাইট বজায় রাখতে দিনে ২০ কোটি টাকা খরচ করতে হবে না। এয়ার ইন্ডিয়ার বিক্রি নিয়ে কংগ্রেস সহ দেশের বাকি বিরোধী দলগুলো আপত্তি করার মাঝে সরকারি সম্পত্তি ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব তুহিন কান্ত পাণ্ডে বলেন, টাটার হাতে আমরা দুধ দেওয়া গরু তুলে দিইনি। এই কোম্পানি সংকটে ছিল, আর এটিকে পুনরায় দাঁড় করাতে অনেক টাকার দরকার ছিল।

যদিও, এটা খুব সহজ কাজ হবে না। এয়ার ইন্ডিয়ার নতুন মালিক টাটার একমাত্র সুবিধা হল যে তাঁরা সেই টাকাই পরিশোধ করছে, যেটা তাঁরা তুলতে পারবে বলে অনুমান করেছে। তাঁরা কোনও অতিরিক্ত ঋণ নিচ্ছে না। সরকার গ্রাউন্ড হ্যান্ডলিং কোম্পানি AISATS- এর ৫০ শতাংশ শেয়ার এবং এয়ার ইন্ডিয়া এবং এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসে ১০০ শতাংশ শেয়ার বিক্রি করছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে এয়ারলাইন্সে সরকারের এখনও পর্যন্ত মোটা টাকা খরচ করতে হয়েছে। এমনকি এখনও সরকারের অংশের একটি বড় পাওনা থাকবে। এটিও করদাতার অর্থ থেকে পরিশোধ করতে হবে। ২০১৯ সালে সরকার স্পেশ্যাল পার্পাস ভেহকিলস অনুযায়ী, নতুন কোম্পানি এয়ার ইন্ডিয়া অ্যাসেট হোল্ডিং লিমিটেড বানিয়ে সেখানে ২৯ হাজার ৪৬৪ কোটি টাকা নিবেশ করেছিল। এর মানে এই যে, এয়ার ইন্ডিয়ার নতুন মালিককে এই টাকা শোধ করতে হবে না, সরকারই সমস্ত ঋণ পরিশোধ করবে।

 

Related Articles

Back to top button