নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

পশ্চিমবঙ্গকে তালিবান মুক্ত করব, তৃণমূলকে নিশানা করে হুঙ্কার সুকান্ত মজুমদারের

কলকাতাঃ পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির নতুন রাজ্য সভাপতির পদ পেতেই সুকান্ত মজুমদার তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ করা শুরু করলেন। মঙ্গলবার একটি সভায় বক্তব্য দেওয়ার সময় সুকান্তবাবু বলেন, তৃণমূল কংগ্রেস রাজনৈতিক দলের আড়ালে একটি পারিবারিক সম্পত্তি হয়ে উঠেছে। তৃণমূলে শুধু আত্মীয়দেরই গুরুত্ব দেওয়া হয়। আমাদের দল সাধারণ মানুষদের সুযোগ করে দেয়। সুকান্ত মজুমদার বলেন, আমি তাঁদের ধন্যবাদ জানাতে চাই, যারা বাংলাকে আফগানিস্তান হওয়ার থেকে বাঁচানোর চেষ্টায় রয়েছেন।

সুকান্তবাবু আরও বলেন, কিছু মানুষ ভাবেন যে তাঁরা বিজেপি ছেড়ে চলে গেলে বিজেপি শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু তাঁদের এই ভাবনা কোনদিনও সত্যি হবে না। সুকান্তবাবু বলেন, পশ্চিমবঙ্গে তালিবানের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই জারি থাকবে। উনি হুঙ্কারের সুরে বলেন, তৃণমূল যদি কলকাতা সহ গোটা বাংলার নির্বাচনে কেন্দ্রীয় বাহিনী এনে ভোট করানোর অনুমতি দেয়, তাহলে আমরা দেখিয়ে দেব বিজেপি কী করতে পারে।

বলে দিই, বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে আচমকাই বড়সড় রদবদল করেছে। বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষকে সোমবার আচমকাই ওনার পদ থেকে সরিয়ে বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারকে রাজ্য সভাপতি করা হয়েছে। পাশাপাশি দিলীপ ঘোষেরও পদোন্নতি হয়েছে। ওনাকে বর্তমানে বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি পদে বসানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, সুকান্ত মজুমদারকে নিয়ে ইতিমধ্যে হইচই পড়ে গিয়েছে বঙ্গ বিজেপিতে। গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক তথা বোটানিতে PHD সুকান্ত মজুদারের হাত ধরে আরও দূরে এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছেন বিজেপির নেতা-কর্মীরা। তবে সুকান্তবাবুকে এই মুহূর্তে অনেক কঠিন পরীক্ষার মধ্যে পড়তে হবে। কারণ, ইতিমধ্যে বঙ্গ বিজেপিতে বেসুরোদের আড্ডা বেড়েছে। দলের শক্তি বৃদ্ধি করার পাশাপাশি বিক্ষুব্ধদের শান্ত করে দলে রাখাই এখন ওনার সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ।

Related Articles

Back to top button