নতুন খবরভারতীয় সেনা

চীনের দাদাগিরি কমাতে ভারত মহাসাগরে মোতায়েন হল ব্রহ্মস সুপারসনিক মিসাইল যুক্ত শুখোই বিমান

ভারত মহাসাগরে চীন আর পাকিস্তানের ষড়যন্ত্র ব্যর্থ করতে ভারতীয় বায়ুসেনা অভেদ্য হাতিয়ারের মোতায়েন সংখ্যা বাড়াচ্ছে। ভারত মহাসাগরে চীনের দাদাগিরি কমানোর জন্য তামিলনাড়ুর থঞ্জাবুরে ব্রহ্মস (BrahMos) মিসাইল যুক্ত শুখোই লড়াকু বিমান (SU-30 MKI) এর প্রথম স্কোয়াড্রানকে আজ আধিকারিক রুপে মোতায়েন করা হবে।

সুপারসনিক মিসাইল ব্রহ্মস নিয়ে শুখোই 30 MKI যুদ্ধ বিমানের প্রথম স্কোয়াড্রানের মোতায়েনের সময় চীফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত এবং বায়ুসেনা প্রধান রাকেশ কুমার ভদৌরিয়া উপস্থিত থাকবেন। এই বিমানে সুপারসনিক মিসাইল ব্রহ্মসকে যুক্ত করার জন্য অনেক বদল আনা হয়েছে।

শুখোই বিমানের স্কোয়ার্ডানকে টাইগার শার্ক’স নাম দেওয়া হয়েছে। এটি শুখোই বিমানের ১২ তম স্কোয়ার্ডান হতে চলেছে। এছাড়াও ১১ টি স্কোয়ার্ডান চীন আর পাকিস্তান সীমান্তে নজর রাখার জন্য মোতায়েন করা আছে।

ব্রহ্মস যুক্ত এই লড়াকু বিমান ভারতীয় সীমার রক্ষা করার সাথে সাথে চীন-পাকিস্তানের যেকোন আক্রমণকে প্রতিহত করার জন্য সক্ষম হবে। শুধু তাই নয়, ব্রহ্মস যেকোন প্রকারের এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ারকেও সেকেন্ডের মধ্যে ধ্বংস করে দিতে পারবে। এই মিসাইলের গতি এতই বেশি যে, শত্রুরা পালটা জবাব দেওয়ার আগেই শেষ হয়ে যাবে।

Back to top button
Close