নতুন খবরভারতবর্ষরাজনীতি

অসমে কংগ্রেসের নেতা-বিধায়কদের মধ্যে দল ছাড়ার হিড়িক, ইস্তফা দিলেন আরও এক বিধায়ক

গুয়াহাটিঃ অসমে (Assam) কংগ্রেসের (Congress) নেতা আর বিধায়কদের মধ্যে দল ছাড়ার হিড়িক তুঙ্গে। অসমের থোওরা আসন থেকে কংগ্রেসের টিকিটে একুশের নির্বাচন জয়লাভ করা বিধায়ক সুশান্ত বোরগোহেঁ (Sushanta Borgohain) শুক্রবার দলের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করলেন। কিছুদিন ধরে ওনার বিজেপি (Bharatiya Janata Party) যোগের জল্পনা উঠেছিল। এরপর কংগ্রেস তাঁকে শো-কজ করে। কিন্তু সেই শো-কজের জবাব দেওয়ার আগেই তিনি দলের প্রাথমিক সদস্যতা থেকে ইস্তফা দিয়ে দেন।

গত ২৮ জুলাই ওনাকে শোকজ নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে ওনার অবস্থান স্পষ্ট করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল দলের তরফ থেকে। কিন্তু সময়সীমা পূর্ণ হওয়ার দু’দিন আগে শোকজ নোটিশের জবাব না দিয়ে দলই ছেড়ে দিলেন তিনি।

অসম কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি ভুপেন বোরা বলেন, ওনাকে শোকজ করা হয়েছিল, সেটির জবাবে তিনি দলের সদস্যতা ত্যাগ করে। এই বিষয়ে আমরা আইনি বিশেষজ্ঞর সঙ্গে কথা বলব। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, কিছুদিন ধরেই সুশান্তের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনা উঠেছিল। আর সেই কারণেই তাঁকে শোকজ করা হয়েছিল। তিনি শোকজের উত্তর না দিয়ে দল থেকেই ইস্তফা দিয়ে দেন।

এখন সুশান বোরগোহেঁ যদি বিজেপিতে যোগ দেন, তাহলে অসমে এই কাজ করা তিনি দ্বিতীয় বিধায়ক হবেন। কারণ মে মাসে হিমন্ত বিশ্ব শর্মা রাজ্যের শাসনভার নিজের কাঁধে তুলে নেওয়ার পর চারবারের কংগ্রেস বিধায়ক রূপজ্যোতি কুর্মি বিজেপিতে যোগ দেন। তিনি বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগে দল এবং বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন। এরপর তিনি ২১ জুন বিজেপিতে যোগ দেন।

এছাড়াও ২১ জুনের দিনই গুয়াহাটি জেলার কংগ্রেস সভাপতি জুরি শর্মাও দল ছাড়েন। এরপর তিনি জুলাই মাসে বিজেপিতে যোগ দেন। প্রাক্তন মন্ত্রী রাজীব লোচন পেগুর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনা উঠেছে। তিনি জুলাই মাসে কংগ্রেসের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন। অসমে কংগ্রেস নেতাদের মধ্যে দল ছাড়ার হিড়িক পড়েছে। আর এর মধ্যে সদ্য দলত্যাগী সুশান্ত বোরগোহেঁর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা আরও প্রবল হয়েছে।

Related Articles

Back to top button