নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

ভেস্তে গেল শুভেন্দুর দুর্গাপুজো বন্ধ করার প্ল্যান, আদালতে জোর ঝটকা খেল মমতা সরকার

কলকাতাঃ রাজ্যের বিরোধী দলনেতা তথা নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীর কাঁথির ক্লাব চৌরঙ্গী রিক্রিয়েশনকে সেচ দফতরের মাঠে পুজো করার ছাড়পত্র দিল কলকাতা হাইকোর্ট। আদালতের তরফ থেকে এও জানানো হয়েছে যে, লক্ষ্মীপুজোর পর ১৮ তারিখ চৌরঙ্গী রিক্রিয়েশন ক্লাবকে সেচ দফতরের সম্পূর্ণ মাঠ খালি করে দিতে হবে।

আদালতের এই নির্দেশের পর খুশির হাওয়া বয়ে গিয়েছে কাঁথিতে। চৌরঙ্গী রিক্রিয়েশন ক্লাবের সদস্যরা জানিয়েছেন, সরকার অনেক ষড়যন্ত্র করে মায়ের পুজো বন্ধ করতে চাইছিল, তবে তা পারল না। আদালতের সামনে হার মানতে হল রাজ্যকে। উল্লেখ্য, কাঁথির রিক্রিয়েশন ক্লাবের সভাপতি হলেন শুভেন্দু অধিকারী। ২২ বছর ধরে সেচ দফতরের মাঠেই পুজো করে আসে তাঁরা। কিন্তু শুভেন্দু তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া মাত্রই ক্লাবের পুজোর জন্য অনুমতি দিয়েছিল না সেচ দফতর।

ক্লাবের সদস্যরা জানিয়েছিলেন, প্রথমে আমাদের অনুমতি দেওয়া হলেও তৎক্ষণাৎ এক আধিকারিক আমাদের থেকে অনুমতিপত্র চেয়ে নেন, তিনি বলেন এখানে আরও কিছু বিষয় যোগ করতে হবে। এরপরই তাঁরা আমাদের অনুমতি দেবে না বলে জানান। সদস্যদের অভিযোগ, সেচ দফতর থেকে পরিস্কার জানানো হয় যে, শুভেন্দু অধিকারীকে পদ থেকে না সরানো হলে আমাদের পুজো করতে দেওয়া হবে না। এরপরই আমরা আদালতের দ্বারস্থ হই।

অন্যদিকে রাজ্যের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল যে, সেচ দফতরের ওই মাঠে প্রচুর সামগ্রী রয়েছে যা এই বৃষ্টিতে সরানো সম্ভব নয়। তাই অনুমোদন আটকে দেওয়া হয়েছিল। ক্লাবের তরফ থেকে আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার পর আদালত পর্যবেক্ষণের জন্য একজন আধিকারিককে নিযুক্ত করে। এরপর সেই আধিকারিক জানান, সেচ দফতরের মাঠে কোনও মালপত্র নেই। ওই আধিকারিকের রিপোর্টের ভিত্তিতেই বিচারপতি সুব্রত তালুকদার ও বিচারপতি কেসাং ডোমা ভুটিয়ার ডিভিশন বেঞ্চ শুভেন্দু অধিকারীর ক্লাবকে পুজো করার অনুমতি দেয়।

Related Articles

Back to top button