নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘ওদেশের সনাতনী হিন্দুরা আমার আত্মীয়” বাংলাদেশ নিয়ে গর্জে উঠলেন শুভেন্দু অধিকারী

কলকাতাঃ বাংলাদেশে (bangladesh) হিন্দুদের উপর নির্যাতন, দুর্গা মণ্ডপে হামলার প্রতিবাদে গর্জে উঠেছে ভারতও। দেশের সরকার ও বিভিন্ন রাজনৈতিক মহল থেকে এই বিষয়ে প্রতিক্রিয়া সামনে এসেছে। আর এরই মধ্যে বাংলাদেশের ঘটনায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee) নীরব কেন? সেই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)।

সোমবার বাংলাদেশে হিন্দুদের উপর হওয়া ঘটনার প্রতিবাদে কলকাতায় বাংলাদেশের উপদূতাবাসে যান শুভেন্দু অধিকারী। সেখান থেকে ফেরার পর তিনি কয়েকটি ছবি পোস্ট করে বাংলাদেশে লাগাতার চলা ঘটনা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি লেখেন, ‘বাংলাদেশের সনাতনী হিন্দুদের উপর লাগাতার হিংসা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছি। বিশ্বের যেকোন প্রান্তে হিন্দুরা বিপদে পড়লে তাঁদের অধিকার ও সুরক্ষার জন্য লড়াই করার জন্য আমরা প্রতিবদ্ধ।”

বাংলাদেশের উপদূতাবাস থেকে বেরিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস এবং তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করেন শুভেন্দু অধিকারী। উনি কটাক্ষ করে বলেন, ‘তৃণমূলকে ঘুমাতে বলুন। ভবানীপুরে প্রচারে গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, তিনি হিন্দু ঘরের মেয়ে বলে প্রধানমন্ত্রী ওনাকে রোমে যেতে অনুমতি দেন নি। আর আজ উনি বাংলাদেশের ঘটনায় চুপ। ভোটব্যাংক চলে যাবে বলেই কী উনি ৫ দিন ধরে নীরব?”

শুভেন্দু অধিকারী বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংখ্যাগুরুদের সংখ্যালঘু ভোট পেয়েছেন বলেই ওনার দায়বদ্ধতা নেই। উনি ২০১৯ সালে সবার সামনে বলেছিলেন, যেই গরু দুধ দেয় তাঁর লাথি খাওয়া ভালো। বাংলাদেশ নিয়ে কিছু বললে দুধেল গাইরা চটে যাবেন তাই উনি চুপ রয়েছেন। বাংলার মানুষ সব দেখছেন।” শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘ওদেশের সনাতনী হিন্দুরা আমার আত্মীয়। অবিলম্বে অত্যাচার বন্ধ করতে হবে।”

Related Articles

Back to top button