নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘ওষুধের দোকানের পিছনে দাঁড়িয়ে মদ খায়” তৃণমূলে যোগ দেবে বলায় মন্ত্রীকে তুলোধোনা শুভেন্দুর

কলকাতাঃ গত রবিবার রাজ্যের মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্রের (Soumen Mahapatra) এক চাঞ্চল্যকর দাবি ঘিরে রাজ্য রাজনীতিতে শোরগোল পড়ে যায়। সেদিন তিনি দাবি করেছিলেন যে, রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) খুব শীঘ্রই তৃণমূলে (All India Trinamool Congress) যোগদান করতে চলেছেন। সৌমেনবাবু এও দাবি করেছিলেন যে, নন্দীগ্রাম নিয়ে আদালতে যেই মামলা চলছে, সেটার রায় বের হলে শুভেন্দু অধিকারী আর বিধায়ক থাকবেন না।

এবার মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্রের সেই দাবিতে পাল্টা কটাক্ষ করলেন শুভেন্দু অধিকারী। নন্দীগ্রামের বিধায়ক বলেন, ‘সৌমেনবাবু প্রতিদিনই সুরা পান করেন। তিনি সেদিন মনে হয় দিনের বেলাতেই সুরা পান করেছিলেন। আর এই কারণেই তিনি এমন মন্তব্য করেছেন। যদিও, এটা আমার বলা উচিৎ নয়। তবুও বলছি যে, তমলুকের সবাই জানে উনি সন্ধ্যার পর ওষুধের দোকানের পিছনে কী করেন। আমার মনে হয় উনি সেদিন দিনের বেলাতেই অপ্রকৃতস্থ ছিলেন, এই কারণেই এমন কথা বলেছেন।”

উল্লেখ্য, শুভেন্দু অধিকারীর কেন্দ্র নন্দীগ্রামে দাঁড়িয়েই মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র দাবি করেছিলেন যে, শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা, আর কয়েকদিন পরই শুভেন্দু অধিকারী বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেবেন। তিনি এও বলেছিলেন যে, শুভেন্দুর বিরোধী দলনেতার পদটা থাকবে কী না সেটা নিয়েও সন্দেহ রয়েছে। নন্দীগ্রামে উপনির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছিলেন তিনি।

পাশাপাশি সৌমেন মহাপাত্র এও বলেছিলেন যে, বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা কমে ৩০ দাঁড়াবে। ওনার এই মন্তব্যের পর রাজ্য রাজনীতিতে নতুন করে জল্পনার সৃষ্টি হয়। আর ওনার এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া দিতেই শুভেন্দুবাবু ওনাকে কার্যত মাতাল বলেই কটাক্ষ করেন।

Related Articles

Back to top button