নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

সাতকলা পূর্ণ হল! অবশেষে তৃণমূলের সদস্যতাও ছাড়লেন শুভেন্দু অধিকারী

কলকাতাঃ অবশেষে সাতকলা পূর্ণ হল। গতকাল বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর আজ তৃণমূলের (All India Trinamool Congress) সদস্যতাও ছাড়লেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী এবং নন্দিগ্রাম আন্দোলনের অন্যতম মুখ শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে চিঠি পাঠিয়ে তৃণমূলের সদস্যতা ছেড়েছেন। এছাড়াও ওনাকে সুযোগ দেওয়ার জন্য তিনি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদও জানিয়েছেন।

গতকাল বিধানসভায় গিয়ে ইস্তফা পত্র দিয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। এরপর বিধানসভা থেকে তিনি সরাসরি কাঁকসার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। কাঁকসায় গিয়ে পূর্ব বর্ধমানের তৃণমূল সাংসদ সুনীল মণ্ডলের বাড়িতে গিয়ে বৈঠক করেন শুভেন্দু অধিকারী। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, ওই বৈঠকে তৃণমূল নেতা দীপ্তাংশু চৌধুরী এবং তৃণমূলের পূর্ব বর্ধমানের কালনার বিধায়ক বিশ্বজিৎ কুণ্ডু এবং আসানসোলের বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারি। এছাড়াও তৃণমূলের আরও কয়েকজন বিক্ষুব্ধ নেতা এই বৈঠকে অংশ নেন।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, শুভেন্দু অধিকারী এই বৈঠকে স্পষ্ট জানিয়ে দেন যে তিনি ১৯ ডিসেম্বর শনিবার বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন। তবে তিনি একা নন, ওই দিন তৃণমূলের আরও কয়েকজন বিক্ষুব্ধ বিধায়ককে সঙ্গে নিয়েই বিজেপিতে যাবেন তিনি। মেদিনীপুর তথা রাজ্যের আরও কয়েকটি জেলার বিক্ষুব্ধ বিধায়কদের নিয়েই অমিত শাহের হাত ধরে সেদিন ওনার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, গতকালের বৈঠকে পূর্ব বর্ধমানের তৃণমূল সাংসদ সুনীল মণ্ডল আক্ষেপ করে বলেন যে, ‘আমাদের পায়ের তোলা থেকে মাটি সরে গিয়েছে, আর এই কারণেই আমরা আজ বিদ্রোহের সুর ধরেছি। আমরা অনেক অভিযোগ করেছি, কিন্তু এরপরেও দলে কোনও সংশোধন নেই। আর এই ক্ষোভ শুধু আমার মধ্যে নয়, সবার মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে। সবাই প্রশান্ত কিশোর আর তার সংস্থার বিরুদ্ধে তেতে উঠেছেন।”

সুত্রের খবর অনুযায়ী, এই বৈঠকে প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু বলেছেন যে, আগামী ১৯ তারিখ শনিবার মেদিনীপুরের কলেজ ময়দানে অমিত শাহের সভায় তিনি বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেবেন। আর এই যোগদান পর্বে ওনার সাথে তৃণমূলের আরও কয়েকজন বিক্ষুব্ধ বিধায়ক থাকবেন। বিজেপিতে যোগদান করে তিনি জেলা সফরে বেরিয়ে সংগঠন মজবুত করার কাজ করবেন।

Related Articles

Back to top button