নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

শনিবার নতুন ভূমিকায় দেখা যাবে শুভেন্দু অধিকারীকে

কলকাতাঃ বিজেপির টিকিটে জয়ী নতুন বিধায়কদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হোক চাইছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। মঙ্গলবার বিজেপির কর্মসমিতির বৈঠকে এই প্রস্তাব দেন তিনি। আর সেই প্রস্তাবের পর শনিবার বিজেপির হেস্টিংস দফতরে বসতে চলেছে বিধায়কদের ক্লাস। প্রশিক্ষণ নেবেন ‘স্যার” শুভেন্দু অধিকারী।

বিজেপি সূত্রের খবর অনুযায়ী, শনিবার গোটা দিনই এই প্রশিক্ষণ শিবির চলছে। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ সকাল ১০টা নাগাদ সেই প্রশিক্ষণ শিবিরের উদ্বোধন করবেন। এরপর একে একে রাজ্যের শীর্ষ নেতারা ক্লাস নেবেন। তবে প্রধান শিক্ষক হিসেবে থাকবেন নন্দীগ্রামে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারানো শুভেন্দু অধিকারী। বিধানসভায় তৃণমূলীদের কীভাবে কাউন্টার করতে হবে, মন্ত্রীদের বিরুদ্ধে কী ভূমিকা থাকবে তাঁদের, সবই শেখানো হবে এই ক্লাসে।

বিজেপির সব বিধায়কদের মধ্যে একমাত্র পোর খাওয়া বিধায়ক হলেন শুভেন্দু অধিকারী। আর এই কারণেই তাঁকে এই প্রশিক্ষণ শিবিরের হেড স্যার বানানো হয়েছে। ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে এরাজ্যে মাত্র ৩ জন বিজেপির বিধায়ক ছিল। তাঁদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন দিলীপ ঘোষ। এবার বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা ৭৭। তবে দুজন বিধায়ক নিশীথ প্রামাণিক এবং জগন্নাথ সরকার পদত্যাগ করায় সেই সংখ্যা কমে ৭৫-এ দাঁড়িয়েছিল। এরপর মুকুল রায় বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় সেই সংখ্যা আরও কমে গিয়েছে। এদের মধ্যে হাতেগোনা কয়েকজনই প্রথমবার বিধানসভায় পা রেখেছেন, তাই তাঁদের প্রশিক্ষণ দেওয়াটা অত্যন্ত জরুরি।

এছাড়াও এই প্রশিক্ষণ শিবিরে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে আসা নেতারাও ক্লাস নেবেন বলে জানা গিয়েছে। সব্যসাচী দত্ত, জটু লাহিড়িদেরও ক্লাস নেওয়ার জন্য বলতে পারেন। এছাড়াও বিজেপির সাংসদদেরও এই প্রশিক্ষণ শিবিরে যোগ দেওয়ার জন্য আবেদন জানানো হতে পারে। সবার পরামর্শ নিয়েই আগামী দিনে বিধানসভায় রণনীতি ঠিক করবে গেরুয়া শিবির।

Related Articles

Back to top button