নতুন খবরভারতবর্ষ

এক মহিলাকে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে মেরেছে তাহির হোসেনের গ্যাং! উঠে এল চাঞ্চল্যকর ছবি

দিল্লীতে () উন্মাদী কট্টরপন্থীরা এর বিরোধের নামে যে উপদ্রব করেছে তার বিস্তারিত এখনও দেশের সামনে সম্পূর্নভাবে আসেনি। কট্টরপন্থীরা পরিকল্পিতভাবে একজোট হয়ে দিল্লীতে অশান্তি খুন খারাপি ও অগ্নিসংযোগের খবর করেছে। সমস্ত হিংসার পেছনে বিদেশী ফান্ডিং, আতঙ্কবাদী কানেকশন রয়েছে বলেও ধারণা করা হয়েছে। ধারাবাহিক হিংসার কিছু ঘটনার পিছনে আম আদমি পার্টির হাত রয়েছে বলে অভিযোগ উঠছে। আম-আদমি পার্টির মুসলিম নেতা তাহির হোসেন দিল্লীতে অশান্তি ফেলানোর জন্য বড়ো ভূমিকা পালন করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানিয়ে দি, IB অফিসার অঙ্কিত শর্মাকে তাহির হোসেনের বাড়িতেই হত্যা করে নর্দমায় ফেলে দেওয়া হয়েছিল বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। এখন তাহির হোসেনের বাড়ি থেকে আরো এক চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট সামনে এসেছে।

 

দাঙ্গার সময় আসলে তাহির হোসনের বাড়িতে ৪০ থেকে ১০০ জন কট্টরপন্থী জমায়েত হয়েছিল। যারা হোসেনের বাড়িতে অঙ্কিতের মতো অনেকজনকে টেনে হিঁচড়ে ঢুকিয়ে নিত এবং হত্যা করে ড্রেনে ফেলে দেওয়ার কাজ করতো। এলাকাবাসীর দাবি অনুযায়ী প্রায় ৪ জনকে হোসেনের বাড়িতে ঢুকিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

এখন খবর আসছে যে তাহির হোসেনের বাড়িতে এক মহিলাকে টেনে হিঁচড়ে আনা হয়েছিল। তৎপর মহিলাকে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারা হয় এবং শবদেহ নিখোঁজ করিয়ে দেওয়া হয়। এখন ওই মহিলার লাশ পাওয়া গেছে এবং পোস্টমর্টেমের জন্য পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। থেকে আগত খবর গুলি এতই সংবেদনশীল যে বিস্তারিত জানানোও কঠিন হয়ে উঠেছে। কিছু সংবাদ মাধ্যম ঘটনাগুলিকে গোপন করার উপর এজেন্ডা চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠছে।

Back to top button
Close